আবদুল লতিফ মির্জা

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

আবদুল লতিফ মির্জা (আনু. ১৯৪৪–৫ নভেম্বর ২০০৭) বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার রাজনীতিবিদ যিনি পাবনা-৪সিরাজগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।[১][২]

আবদুল লতিফ মির্জা
আবদুল লতিফ মির্জা.jpg
পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৯ – ১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৮২
সিরাজগঞ্জ -৪ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৭ মে ১৯৮৬ – ৩ মার্চ ১৯৮৮
কাজের মেয়াদ
১২ জুন ১৯৯৬ – ১ অক্টোবর ২০০১
পূর্বসূরীমোঃ শামছুল আলম
উত্তরসূরীএম আকবর আলী
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মআনু. ১৯৪৪
সিরাজগঞ্জ, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু৫ নভেম্বর ২০০৭
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

আবদুল লতিফ মির্জা মুক্তিবাহিনীর সদস্য ছিলেন। তিনি ৬ দফা আন্দোলন, ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণসহ তৎকালীন সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে তিনি সক্রিয় ভূমিকা রাখেন।

১৯৭৯ সালের দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তৎকালীন পাবনা-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৩]

৭ মে ১৯৮৬ সালের তৃতীয় ও ১২ জুন ১৯৯৬ সালের সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে তিনি সিরাজগঞ্জ-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৪][৫]

মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদানসম্পাদনা

সিরাজগঞ্জ জেলার কামারখন্দ থানাকে কেন্দ্র করে মুক্তিযুদ্ধে পলাশডাঙা যুবশিবির বা লতিফ মির্জা বাহিনী গড়ে ওঠে। পরিচালক ছিলেন আবদুল লতিফ মির্জা। ৭টি রাইফেল ও১৫ জন যোদ্ধা নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও এক সময় অস্ত্র সংখ্যা ১০হাজার এবং যোদ্ধা সংখ্যা ৮ হাজারের বেশি উন্নীত হয়। মূলত সিরাজগঞ্জ ,বগুড়া, নাটোর, রাজশাহী, পাবনায় লতিফ মির্জা বাহিনী যুদ্ধ করতো। চলনবিলের বিস্তীর্ণ এলাকা ছিলো লতিফ মির্জা বাহিনীর শক্ত ঘাঁটি। লতিফ মির্জা বাহিনীর উল্লেখযোগ্য যুদ্ধ হচ্ছে কাশিনাথপুর ডাব বাগানের যুদ্ধ, ইটনা যুদ্ধ, ফরিদপুর থানা যুদ্ধ,সাঁথিয়া যুদ্ধ।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

মৃত্যুসম্পাদনা

আবদুল লতিফ মির্জা ৫ নভেম্বর ২০০৭ সালে মৃত্যুবরণ করেন।[৬][৭]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "৭ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "আব্দুল লতিফ মির্জা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২৭ 
  3. "২য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. "৩য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "৭ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  6. "Ex-AL lawmaker Mirza Latif passes away"The Daily Star। ২০০৭-১১-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১৯ 
  7. "Former AL MP Abdul Latif Mirza dies at 63"bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১৯