আজব গাঁয়ের আজব কথা

১৯৯৮ সালের বাংলা চলচিত্র

আজব গাঁয়ের আজব কথা একটি বাংলা হাস্যরসাত্বক চলচ্চিত্র যার পরিচালক তপন সিনহা। এটি শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের শিশুদের উপন্যাস নবীগঞ্জের দৈত্য অনুসারে শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস দ্বারা নির্মিত ও ১৯৯৮ সালে প্রকাশিত।[১][২]

কাহিনীসম্পাদনা

নবীগঞ্জ গ্রামের রাজা বীরচন্দ্র থাকেন। তার রাজপাট না থাকলেও গ্রামের মানুষ তাকে ভালবাসে ও রাজা বলেই ডাকে। এই গ্রামে অনেক অদ্ভুত লোকের বাস। তাদের মধ্যে প্রবীন পুরোহিত, শিক্ষক দুখহরণ বাবু অন্যতম। একদিন কিংকর নামের দৈত্যাকৃতি একটি লোক এসে রাজবাড়িতে আশ্রয় নেয়, জানা যায় সে স্মৃতিভ্রংশ হয়েছে। গ্রামের মানুষ অনেক চেষ্টা করেও তার পরিচয় জানতে পারেনা। অন্যদিকে একদল ডাকাত রাজবাড়ীর গুপ্তধনের লোভে গ্রামে হানা দেয়। নিরীহ শিক্ষক দুখহরণের ওপর ভৌতিক ক্ষমতা ভর করে, তিনি ও গ্রামবাসীরা মিলে ডাকাতদলকে পরাস্ত করেন। ডাকাতরা কিংকরকে হত্যা করতেই এসেছিল, কারণ কিংকরের পিতা ছিল রাজ পরিবারের অন্যতম বিশ্বস্ত কর্মচারী।

অভিনয়সম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "AJAB GAANYER AJAB KATHA (1998)"BFI (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২৩ 
  2. "অর্ধ শতকেরও বেশি সময় ধরে আমাদের আটপৌরে জীবনকে পদ্যময় করে রেখেছে অনুকূল ঠাকুরের এই পরম ভক্তের গদ্য - Banglalive"Dailyhunt (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-২৩