অসুর (সংস্কৃত: असुर) হল একটি নির্দিষ্ট শ্রেণীর জীব বা শক্তিকামী গোত্র যা হিন্দুধর্মের কল্যাণকামী সত্ত্বা দেবের (সুর নামেও পরিচিত) সঙ্গে অধিক সম্পর্কযুক্ত। পরিভাষাটিক ভাষাগতভাবে ইন্দো-ইরানীয় ও প্রাক-জরাথুস্ট্রবাদী যুগের অহুরের সঙ্গে সম্পর্কিত বলে ধারণা করা হয়।[১][২][৩]

কম্বোডিয়ার আংকরওয়াটে, সমুদ্রমন্থনের টেরাকোটা, যাতে দেখা যাচ্ছে সর্বমধ্যস্থলে বিষ্ণু, তার অবতার কূর্মে আসীন, সঙ্গে উভয় পাশে অসুর ও দেবতা। উইকিমিডিয়া কমন্সে এর একটি চিহ্নিত সংস্করণ দেখুন।

অসুরেরা সবসময় দেবদের সঙ্গে যুদ্ধ করে থাকে।[৪] ভারতীয় পাণ্ডুলিপিতে অসুরদেরকে শক্তিশালী অতিমানব অর্ধদেবতা হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে, যাদের ভালো কিংবা খারাপ গুণাবলি থাকে। ভালো অসুরদের বলা হয় আদিত্য আর তারা বরুণের দ্বারা পরিচালিত হয়, অপরদিকে অকল্যাণকামী অসুরদের বলা হয় দানব এবং তারা বৃত্রের দ্বারা পরিচালিত হয়।[৫] বৈদিক পাণ্ডুলিপির প্রাচীনতম অংশগুলোতে অগ্নি, ইন্দ্র ও অন্যান্য দেবতাদেরকেও অসুর বলে ডাকা হয়েছে, কারণ তারা নির্দিষ্ট কিছু ক্ষেত্র, জ্ঞান বা ক্ষমতার "অধিপতি"। পরবর্তী বৈদিক ও বৈদিক-পরবর্তী লেখনীসমূহে, কল্যাণকামী দেবতাদের দেব বলা হয়েছে, যেখানে অকল্যাণকামী অসুরেরা উক্ত দেবদের বিরুদ্ধে প্রতিযোগিতা করে, যাদেরকে "দেবতাদের শত্রু" হিসেবে বিবেচনা করা হয়।[৬]

দেব, যক্ষ (প্রাকৃতিক আত্মা) ও রাক্ষসদের (ভূত, দৈত্য) পাশাপাশি অসুররা হল ভারতীয় পৌরাণিকতার অংশ। হিন্দুধর্মে বহু মহাজাগতিক তত্ত্বে অসুরদেরকে তুলে ধরা হয়।[৭][৮]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Hale, Wash Edward (১৯৮৬)। Ásura- in Early Vedic Religion (ইংরেজি ভাষায়)। Motilal Banarsidass Publishe। পৃষ্ঠা 6। আইএসবিএন 978-81-208-0061-8। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 
  2. Masih, Y. (২০০০)। A Comparative Study of Religions (ইংরেজি ভাষায়)। Motilal Banarsidass Publ.। পৃষ্ঠা 23। আইএসবিএন 978-81-208-0815-7। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 
  3. Boyce, Mary (১৯৮৯)। A History of Zoroastrianism: The Early Period (ইংরেজি ভাষায়)। BRILL। পৃষ্ঠা 23। আইএসবিএন 978-90-04-08847-4। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 
  4. Wash Edward Hale (1999), Ásura in Early Vedic Religion, Motilal Barnarsidass, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১২০৮০০৬১৮, pp. 2–6
  5. Wash Edward Hale (1999), Ásura in Early Vedic Religion, Motilal Barnarsidass, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১২০৮০০৬১৮, p. 4
  6. Wash Edward Hale (1999), Ásura in Early Vedic Religion, Motilal Barnarsidass, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১২০৮০০৬১৮, pp. 5–11, 22, 99–102
  7. Don Handelman (2013), One God, Two Goddesses, Three Studies of South Indian Cosmology, Brill Academic, আইএসবিএন ৯৭৮-৯০০৪২৫৬১৫৬, pages 23–29
  8. Wendy Doniger (1988), Textual Sources for the Study of Hinduism, Manchester University Press, আইএসবিএন ৯৭৮-০৭১৯০১৮৬৬৪, p. 67

বহিঃসংযোগসম্পাদনা