অরিজিন অব লাইফ এন্ড ইভোল্যুশন অব বায়োস্ফিয়ার

অরিজিন অব লাইফ এন্ড ইভোল্যুশন অব বায়োস্ফিয়ার (ইংরেজি: Origins of Life and Evolution of Biospheres, অনুবাদ 'জীবনের উৎপত্তি ও জৈবমণ্ডলের বিবর্তন') হচ্ছে একটি পির রিভিউ হওয়া বৈজ্ঞানিক সাময়িকী। যা জ্যোতির্জীববিজ্ঞান ও জীবনের সুচনা কিভাবে হলো, তা নিয়ে গবেষণা করার নিমিত্তে ১৯৬৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এটি ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর দ্য স্টাডি অব দ্য লাইফের অফিসিয়াল সাময়িকী। এই সাময়িকীতে যেসব বিষয় নিয়ে গবেষণা পর্যবেক্ষিত হয়, তা হলো পৃথিবী এবং অন্য কোথাও কিভাবে জীবনের সুচনা হয়েছে, সেই প্রাণের বিবর্তন, বণ্টন এবং তার ভবিষ্যৎ। উদাহরণস্বরুপ, এইসব ক্ষেত্রের মধ্যে যেগুলো নিয়ে কাজ করতে দেখা যায়, তা হলো: পূর্বের পৃথিবীর পরিবেশ এবং তৎকালীন আদি জৈব রসায়ন, স্ব-প্রতিলিপিতে সক্ষম ব্যবস্থা, আরএনএ বিশ্ব প্রকল্প এবং জেনেটিক কোডের সৃষ্টির সমস্যা। ২০১৬ সালের জার্নাল সাইটেশন রিপোর্ট অনুসারে এর ইমপ্যাক্ট ফ্যাক্টর ১.০০০।[১] জীবাশ্মবিদ্যার উপর সাম্প্রতিক গবেষণা অনুসারে, আনুমানিকভাবে প্রথম জীবনের সূচনার হয়েছে; ২-৩ বিলিয়ন বা ৩.৫-৩.৮ বিলিয়ন বছর পুর্বে।

অরিজিন অব লাইফ এন্ড ইভোল্যুশন অব বায়োস্ফিয়ার
Origins of Life and Evolution of Biospheres
 
পাঠ্য বিষয়জ্যোতির্জীববিজ্ঞান
ভাষাইংরেজি
সম্পাদকএলান ডব্লিউ. স্কোয়ার্টজ
প্রকাশনা বিবরণ
প্রকাশনার ইতিহাস
১৯৬৮-বর্তমান
১.০০০ (২০১৬)
সূচীকরণ
আইএসএসএন০১৬৯-৬১৪৯ (মুদ্রণ)
১৫৭৩-০৮৭৫ (ওয়েব)
সংযোগ

অ্যাবস্ট্রাক্টস এবং নির্ঘণ্টসম্পাদনা

নিমোক্ত উপাত্তভান্ডারে এই সাময়িকীটি সূচীকৃত ও সারমর্ম দেওয়া হয়েছে:

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Web of Science"। ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০৭-১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা