অঁদ্রে বাজাঁ

ফরাসি চলচ্চিত্র সমালোচক ও তাত্ত্বিক

অঁদ্রে বাজাঁ (ফরাসি: André Bazin; আ-ধ্ব-ব: [ bazɛ̃]; ১৮ই এপ্রিল ১৯১৮ – ১১ই নভেম্বর ১৯৫৮) একজন বিখ্যাত ও প্রভাবশালী ফরাসি চলচ্চিত্র সমালোচকতাত্ত্বিক ছিলেন।

অঁদ্রে বাজাঁ
André Bazin.jpg
অঁদ্রে বাজাঁ
জন্ম(১৯১৮-০৪-১৮)১৮ এপ্রিল ১৯১৮
মৃত্যু১১ নভেম্বর ১৯৫৮(1958-11-11) (বয়স ৪০)
জাতীয়তাফরাসি
মাতৃশিক্ষায়তনএকল নর্মাল স্যুপেরিয়র দ্য সাঁ-ক্লু
পেশাচলচ্চিত্র সমালোচক, চলচ্চিত্র তাত্ত্বিক

চলচ্চিত্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৃত্তি বা কাজ হল বাস্তববাদ, এই যুক্তির স্বপক্ষে মত প্রকাশের জন্য বাজাঁ স্মরণীয় হয়ে আছেন।[১] তিনি চলচ্চিত্রে নৈর্ব্যক্তিক বাস্তবতা ও গভীর দৃষ্টি নিবদ্ধকরণের পক্ষে ছিলেন এবং "মোঁতাজ" (Montage) পদ্ধতি পরিহার করার আহ্বান করেছিলেন।[২] মোঁতাজ পদ্ধতিতে পরিচালক ক্যামেরায় গৃহীত বিভিন্ন দৃশ্যকে কেটে-ছেঁটে জোড়া লাগিয়ে সম্পাদনা করে একটি অর্থবহ ও যৌক্তিক রূপ দেওয়ার চেষ্টা করেন। অর্থাৎ দর্শক পর্দায় কোথায় কী দেখবে, পরিচালক তা নেপথ্যে থেকে নিয়ন্ত্রণ করেন।[৩] বাজাঁ মোঁতাজ পদ্ধতির ঘোর বিরোধী ছিলেন। তিনি মনে করতেন যে এই পদ্ধতিতে বাস্তবতাকে সঠিকভাবে উপস্থাপন ও বর্ণনা করা হয় না। বরং এতে স্থানিক ঐক্য (Spatial unity) বিনষ্ট হয় এবং বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি, সময় ও গভীরতায় তোলা দৃশ্য পাশাপাশি বসিয়ে চালাকি করে দর্শকের কাছে একটি ছদ্ম-বাস্তবতা উপস্থাপন করা হয় এবং এতে দর্শকের মানসিক প্রক্রিয়া ও বিচারবুদ্ধিকে এক প্রকারের অসম্মান করা হয়।[৩] এর বিপরীতে বাজাঁ দীর্ঘ দৃশ্যগ্রহণ (লং শট) এবং "মিজ-অঁ-সেন" (Mise en scène) পদ্ধতি পছন্দ করতেন। মিজ-অঁ-সেন পদ্ধতিতে স্থানিক ঐক্য ও কোনও স্থানে অবস্থিত বস্তুগুলির আপেক্ষিক অবস্থান সংরক্ষণ করা হয়। বাজাঁর বিশ্বাস ছিল যে কোনও চলচ্চিত্রের ব্যাখ্যা করার দায়িত্ব দর্শকের হাতে ছেড়ে দেওয়া উচিত।[৩] বাজাঁর এই তত্ত্ব ছিল ১৯২০ ও ১৯৩০-এর দশকের চলচ্চিত্র তত্ত্বের বিরোধী, যেখানে চলচ্চিত্র কীভাবে বাস্তবতাকে পরিবর্তন করতে পারে, সে ব্যাপারে জোর দেওয়া হত। বাজাঁ তাই প্রামাণ্যচিত্র[৪] ও ইতালীয় নব্য-বাস্তববাদী (বাজাঁ-র ভাষায় "ইতালীয় মুক্তি ঘরানা") ঘরানার চলচ্চিত্রের সমর্থক ছিলেন।[৫]

জীবনসম্পাদনা

বাজাঁ ১৯১৮ খ্রিস্টাব্দে ফ্রান্সের অঁজের শহরে জন্মগ্রহণ করেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ফরাসি সাম্যবাদী দলের শ্রম ও সংস্কৃতি নামক একটি জঙ্গী সংগঠনের হয়ে কাজ করার সময় বাজাঁ-র সাথে ভবিষ্যৎ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন প্রযোজক জানিনের পরিচয় ও প্রণয় ঘটে এবং শেষ পর্যন্ত ১৯৪৯ খ্রিস্টাব্দে তারা বিয়ে করেন। পরে তাদের ফ্লোরঁ নামের এক পুত্রসন্তান হয়েছিল।[৬] ১৯৫৮ সালে ৪০ বছর বয়সে বাজাঁ রক্তের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।[৭]

চলচ্চিত্র সমালোচনাসম্পাদনা

বাজাঁ ১৯৪৩ খ্রিস্টাব্দে চলচ্চিত্র নিয়ে লেখালেখি শুরু করেন। তিনি জাক দোনিওল-ভালক্রোজজোযেফ-মারি লো দ্যুকা-র সাথে ১৯৫১ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত বিখ্যাত চলচ্চিত্র সাময়িকী কাইয়ে দ্যু সিনেমা-র একজন সহ-প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী চলচ্চিত্র গবেষণা ও সমালোচনা ক্ষেত্রে বাজাঁ ছিলেন একজন প্রধান শক্তি। তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কাইয়ে দ্যু সিনেমা-র সম্পাদনা চালিয়ে যান। তাঁর মৃত্যুর পরে ১৯৫৮ থেকে ১৯৬২ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত লেখা তাঁর রচনাবলির চার খণ্ডের একটি সঙ্কলন প্রকাশিত হয়, যার শিরোনাম ছিল কেসক্য ল্য সিনেমা? (Qu'est-ce que le cinéma?, "চলচ্চিত্র কী?")। ১৯৬০-এর দশকে ও ১৯৭০-এর দশকের শুরুতে এই সঙ্কলন থেকে নির্বাচিত কিছু প্রবন্ধ দুই খণ্ডে ইংরেজি ভাষায় অনূদিত হয়। এই অনূদিত গ্রন্থগুলি ইংরেজিভাষী বিশ্বের চলচ্চিত্র সংক্রান্ত পাঠ্যক্রমের একটি প্রধান অংশে পরিণত হয়।

বাজাঁ ব্যক্তিবাদ (personalism) দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিলেন।[৮] তিনি বিশ্বাস করতেন যে একটি চলচ্চিত্রের একজন পরিচালকের ব্যক্তিগত দৃষ্টিভঙ্গির প্রতিনিধিত্ব করা উচিত। এই ধারণাটি পরবর্তীতে চলচ্চিত্রের "ওত্যর তত্ত্বের" বিকাশে বিরাট ভূমিকা পালন করেন। বাজাঁর ভাবশিষ্য চলচ্চিত্র পরিচালক ফ্রঁসোয়া ত্রুফো এ ব্যাপারে একটি নিবন্ধ লেখেন যা বাজাঁ ১৯৫৪ সালে কাইয়ে সাময়িকীতে প্রকাশ করেছিলেন।

জনসংস্কৃতিতে বাজাঁসম্পাদনা

গ্রন্থতালিকাসম্পাদনা

ইংরেজি ভাষায়সম্পাদনা

ফরাসি ভাষায়সম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Dudley Andrew, The Major Film Theories: An Introduction, Oxford, New York: Oxford University Press, 1976, Part II.
  2. Divining the real: the leaps of faith in André Bazin’s film criticism|Sight & Sound|BFI
  3. Introduction to André Bazin, Part 1: Theory of Film Style in its Historical Context, সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০২০ 
  4. Oxford Bibliographies
  5. Review: What is Cinema? by André Bazin|Film Quarterly
  6. Obituary: Janine Bazin|Film|The Guardian
  7. "Andre Bazin dies"Focus Features। ১৮ জানুয়ারি ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৫ 
  8. Citizen Kane, André Bazin and "The Holy Moment" - Decent Films
  9. BFI

আরও পড়ুনসম্পাদনা

  • The André Bazin Special Issue, Film International, No. 30 (November 2007), Jeffrey Crouse, guest editor. Essays include those by Charles Warren ("What is Criticism?"), Richard Armstrong ("The Best Years of Our Lives: Planes of Innocence and Experience"), William Rothman ("Bazin as a Cavellian Realist"), Mats Rohdin ("Cinema as an Art of Potential Metaphors: The Rehabilitation of Metaphor in André Bazin's Realist Film Theory"), Karla Oeler ("André Bazin and the Preservation of Loss"), Tom Paulus ("The View across the Courtyard: Bazin and the Evolution of Depth Style"), and Diane Stevenson ("Godard and Bazin"). Introductory essay, "Because We Need Him Now: Re-enchanting Film Studies Through Bazin," written by Jeffrey Crouse.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

ইন্টারনেটে লব্ধ প্রবন্ধসম্পাদনা

গণমাধ্যম ক্ষেত্রের পদ
পূর্বসূরী
কাইয়ে দ্যু সিনেমা সাময়িকীর সম্পাদক
১৯৫১–১৯৫৮
উত্তরসূরী
এরিক রোমের