হ্যামিল্টন, বার্মুডা

পশ্চিম আটলান্টিক মহাসাগরের ব্রিটিশ সামুদ্রিক অঞ্চল বার্মুডার রাজধানী শহর

হ্যামিল্টন যুক্তরাজ্যের অধীনস্থ সামুদ্রিক অঞ্চল বার্মুডার রাজধানী ও প্রধান বন্দর। এটি পশ্চিম আটলান্টিক মহাসাগরের গ্রেট সাউন্ড বাহুর পূর্ব প্রান্তে বৃহত্তর বার্মুডা দ্বীপের একটি গভীর জলের পোতাশ্রয়ের (হ্যামিল্টন পোতাশ্রয়) উত্তর উপকূলে অবস্থিত। এখানে ২০১৬ সালের হিসাব অনুযায়ী ৮৫৪ জন অধিবাসী বাস করে।[১] জনসংখ্যার বিচারে এটি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম রাজধানী শহরগুলির একটি।

হ্যামিল্টন, বার্মুডা
শহর
Front Street in Hamilton.
Front Street in Hamilton.
বার্মুডাতে অবস্থান নির্দেশকারী মানচিত্র
বার্মুডাতে অবস্থান নির্দেশকারী মানচিত্র
Hamilton BM Map.svg
স্থানাঙ্ক: ৩২°১৭′৩৫″ উত্তর ৬৪°৪৬′৫৫″ পশ্চিম / ৩২.২৯৩° উত্তর ৬৪.৭৮২° পশ্চিম / 32.293; -64.782স্থানাঙ্ক: ৩২°১৭′৩৫″ উত্তর ৬৪°৪৬′৫৫″ পশ্চিম / ৩২.২৯৩° উত্তর ৬৪.৭৮২° পশ্চিম / 32.293; -64.782
সার্বভৌম রাষ্ট্র United Kingdom
সামুদ্রিক অঞ্চলবারমুডা বার্মুডা
প্যারিশপেমব্রোক
প্রতিষ্ঠা১৭৯০
সরকার
 • নগরপালচার্লস আর. গসলিং
আয়তন
 • মোট০.২৮ বর্গমাইল (০.৭ বর্গকিমি)
জনসংখ্যা (২০১৬)
 • মোট৮৫৪[১]
 • জনঘনত্ব৩,০৫০/বর্গমাইল (১,১৮০/বর্গকিমি)
জলবায়ুAf
ওয়েবসাইটwww.cityhall.bm

১৭৯০ সালে ১৪৫ একর জমির উপরে ভবিষ্যৎ রাজধানী হিসেবে হ্যামিল্টন লোকালয়টিকে প্রতিষ্ঠার কাজ শুরু করা হয় ও ১৭৯৩ সালে এটিকে নথিভুক্ত করা হয়। বার্মুডার তৎকালীন গভর্নর বা প্রশাসক হেনরি হ্যামিল্টনের নামে শহরের নামকরণ করা হয়। ১৮১৫ সালে বিদ্যমান ঐতিহাসিক রাজধানী সেন্ট জর্জ শহরের পরিবর্তে হ্যামিল্টন শহরকে ঔপনিবেশিক রাজধানীর মর্যাদা দান করা হয়। ১৮৯৭ সালে এটিকে নগরী বা সিটি-র মর্যাদা দান করা হয়। ব্যবসা ও কর্মসংস্থান চাঙা করার লক্ষ্যে ১৯৫৬ সালে এর বন্দর আন্তর্জাতিক জাহাজের জন্য উন্মুক্ত (শুল্ক ও করমুক্ত) করে দেওয়া হয়।

হ্যামিল্টন বার্মুডার প্রধান বন্দরগুলির একটি। এটি দেশটির অর্থনৈতিক কেন্দ্র ও পর্যটকদের জন্য অন্যতম গন্তব্যস্থল। পর্যটন শহরটির অর্থনীতির মেরুদণ্ড। শহরের মূল সড়কের ধার ধরে অবস্থিত ঘাটে প্রমোদতরীগুলি নোঙর ফেলে। সাধারণত প্রমোদতরীতে করেই পর্যটকরা বেড়াতে আসে। এছাড়া শহর থেকে ১৩ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে একটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আছে।

হ্যামিল্টনের ভবনগুলি সাধারণত প্যাস্টেল রঙে রঞ্জিত থাকে। এগুলির ছাদগুলি স্থানীয় প্রবাল দিয়ে তৈরি ও সাদা রঙে রঞ্জিত। চার্চ স্ট্রিট সড়কে নব্য-গোথিক স্থাপত্যশৈলীতে নির্মিত একটি বড় মহাগির্জা বা ক্যাথেড্রাল (১৯১১ সালে প্রতিষ্ঠিত) আছে। এর কাছেই সেশন্‌স হাউস ভবনে সংসদ, সর্বোচ্চ আদালত এবং বিচার বিভাগীয় কার্যালয়গুলি অবস্থিত। পার-লা-ভিল উদ্যানে বার্মুডা গ্রন্থাগার ও ঐতিহাসিক সমিতি জাদুঘরটি দাঁড়িয়ে আছে। নগরভবনে একটি শিল্পকলা প্রদর্শনী কক্ষ আছে। প্রাচীন হ্যামিল্টন দুর্গ ও এর প্রতিরক্ষা প্রাচীরগুলিও দর্শনীয়। বার্মুডার সামরিক স্থাপনাগুলিও হ্যামিল্টনে অবস্থিত। শহরের পূর্বে প্রস্পেক্ট ক্যাম্প নামক স্থানে ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর রক্ষীসেনাদের প্রধান কার্যালয়টি অবস্থিত। অতীতে হ্যামিল্টনের ভবনগুলির উচ্চতার উপরে কড়াকড়ি থাকলেও বর্তমানে বহুতল উচ্চ ভবন নির্মাণের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ফলে শহরের চেহারা পাল্টাতে শুরু করেছে।

বিষুবরেখা থেকে বেশ উত্তরে ৩২ ডিগ্রি উত্তর অক্ষাংশে অবস্থিত হলেও উপসাগরীয় সমুদ্রস্রোত ও আটলান্টিক মহাসাগরের প্রভাবের কারণে এখানকার জলবায়ু অপেক্ষাকৃত উষ্ম ও মৃদু প্রকৃতির। গ্রীষ্মকালগুলি উষ্ণ ও আর্দ্র; শীতকাল বলতে কিছু নেই। সারা বছরই বৃষ্টিপাত হয়, কোনও শুষ্ক মৌসুম নেই।

চিত্র প্রদর্শনীসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "2016 Population and Housing Census Report" (PDF)। Government of Bermuda, Department of Statistics। সংগ্রহের তারিখ ১১ মার্চ ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা