হিরোসাই নোহারা

হিরোসাই নোহারা (ইংরেজি: Hiroshi Nohara) (জন্মঃ ১৯৬৭ ইং) একজন জাপানি পর্যটক যিনি মেক্সিকো সিটির বেনিতো হুয়ারেস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এরাইভেল লাউঞ্জে প্রায় চার মাস কাটিয়েছেন। তিনি বিমানবন্দরে পৌঁছান ২ সেপ্টেম্বর ২০০৮ সালে ও বিমান বন্দর ত্যাগ করেন ২৯ ডিসেম্বর ২০০৮ সালে। বিমানবন্দর ত্যাগ করে তিনি একজন মহিলার সাথে মেক্সিকো সিটির একটি এপার্টমেন্টে উঠেন। মহিলাটিকে ওয়ুকি নামে সনাক্ত করা হয়।[১]

জীবনীসম্পাদনা

নোহারা মেক্সিকোতে আসার পূর্বে জাপানের অফিস পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কর্মী ছিলেন।[২] বিমানবন্দরে থাকাকালীন সময়ে তার খাবার-দাবার বিমানবন্দরের একটি ফাস্ট ফুড দোকান ও কম্বল, জামাকাপড় সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী তাকে দেখতে আসা উৎসাহী মানুষরা সরবরাহ করেন।[৩] পরবর্তীতে যখন নোহারা বিভিন্ন মিডিয়ার মারফতে পরিচিতি লাভ করতে থাকেন তখন ফাস্ট ফুড কোম্পানী থেকে তাদের নিজস্ব টি শার্ট, টুপি ও মগ সরবরাহ করেন যাতে টিভিতে তাকে দেখানোর সময় সারাদেশে দোকানটিরও প্রচারণা হয়।[৪] নোহারা উক্ত তিন মাসে কিছু স্পেনিশ ও ইংরেজি ভাষা শেখেন।[৫]

লোকাল মিডিয়া গুলো ইন্টারপ্রেটার এর মাধ্যমে তার সাক্ষাৎকার গ্রহণের সময়, কাগজপত্র কোন সমস্যা না থাকার পরও কেন বিমান বন্দরে অবস্থান করছেন জানতে চাইলে তিনি প্রশ্ন এড়িয়ে যান। কিন্তু বিমানবন্দরের একজন ওয়ের্ট্রেসের মাধ্যমে জানা যায়, তিনি প্রেম ঘটিত কোন কারণে বিমান বন্দরে কাটান।[৬]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৩ জানুয়ারি ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মে ২০০৯ 
  2. Gould, Jens Erik and Adriana Lopez Caraveo (২০০৮-১১-২৬)। "Japan Tourist Extends Layover at Mexico Airport: 85 Days So Far"। Bloomberg.com। 
  3. "Un Japonés vive en el Aeropuerto de México desde hace tres meses"। Clarin.com। ২০০৮-১১-২৯।  অজানা প্যারামিটার |languaje= উপেক্ষা করা হয়েছে (সাহায্য)
  4. "Japonés vive en terminal del aeropuerto de México" (Spanish ভাষায়)। "Laprensahn.com"। ২০০৮-১১-২৯। ২০০৯-০৩-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৫-৩১ 
  5. "El turista Japonés Hiroshi Nohara, en el Aeropuerto de Ciudad de Mexico" (Spanish ভাষায়)। "adn.es"। ২০০৮-১১-২৯। ২০০৯-০১-০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৫-৩১ 
  6. "Japanese acting the real Terminal in a Mexican airport" (Chinese ভাষায়)। "United News"। ২০০৮-১২-৩১। ২০০৮-১২-৩১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৫-৩১