প্রধান মেনু খুলুন

হান সাম্রাজ্য (ইংরেজি) (চীনা: 漢朝; ফিনিন: Hàn cháo) হচ্ছে চিন সাম্রাজ্যের (Qin) (খ্ৰী:পূ: ২২১-২০৭) পর চীনের ইতিহাসের দ্বিতীয় সামন্ততান্ত্রিক সাম্রাজ্য। চিন সাম্রাজ্যের পরে হানরা প্রায় ৪০০ বছর রাজত্ব করে। এই রাজ্য পরে তিন রাজ্যে (২২০–২৮০ খ্রিঃ) ভেঙ্গে যায়। পূর্ব চীনের সমভুমিতে হানরা রাজত্ব করত। চারশ বছরের এই হান শাসনকাল সময়কে চীনের ইতিহাসে চীনের স্বর্ণযুগ বলা হয়।[৩] ঐসময় থেকে বৰ্তমান চীনের অধিকাংশ লোক নিজেদের হান জাতি বলে পরিচয় দেয় এবং চীনা লিপিকে হান অক্ষর বলে থাকে।[৪] এই সাম্রাজ্যের প্ৰতিষ্ঠাতা ছিলেন বিদ্ৰোহী নেতা লিউ বাং। মৃত্যুর পর তিনি হান সম্ৰাট গাউজু হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। মাঝখানে কিছু বছর জিন (Xin) সাম্রাজ্যের (৯-২৩ সন) আধিপত্য চলছিল যদিও হান সাম্রাজ্য পুনরায় ক্ষমতা দখল করে নেয়। জিন সাম্রাজ্যের কারণে হান সাম্ৰাজ্যকে দুটি ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে- পূর্বাঞ্চলীয় হান বা আদি হান (২০৬ খ্ৰী:পূ:-৯ সন) এবং পশ্চিমাঞ্চলিয় হান বা পরবৰ্তী হান (২৫-২২০ চন)।

হান সাম্রাজ্য
漢朝

খ্রিস্টপূর্ব ২০৬ অব্দ–২২০ খ্রিস্টাব্দ
 

 

খ্রিস্টপূর্ব ৮৭ অব্দে হান সাম্রাজ্য (বাদামী), সেনা দপ্তর (লাল বিন্দু) ও প্রতিরক্ষা দপ্তর (সবুজ বিন্দু)
রাজধানী চাং'আন
(খ্রিস্টপূর্ব ২০৬ অব্দ – ৯ খ্রিস্টাব্দ, ১৯০ – ১৯৫ খ্রিস্টাব্দ)

লুওইয়াং
(২৫ – ১৯০ খ্রিস্টাব্দ, ১৯৬ খ্রিস্টাব্দ)

সুচাং
(১৯৬ – ২২০ খ্রিস্টাব্দ)
ভাষাসমূহ প্রাচীন চীনা ভাষা
ধর্ম তাও ধর্ম, কনফুসীয় ধর্ম, চীনা লোকজ ধর্ম
সরকার রাজতন্ত্র
সম্রাট
 -  খ্রিস্টপূর্ব ২০২ – ১৯৫ অব্দ হান সম্রাট গাওজু
 -  ২৫ - ৫৭ খ্রিস্টাব্দ হান সম্রাট গুয়াংয়ু
চ্যান্সেলর
 -  খ্রিস্টপূর্ব ২০৬ – ১৯৩ অব্দ সিয়াও হে
 -  চাও চান
 -  খ্রিস্টপূর্ব ১৮৯ – ১৯২ অব্দ ডং ঝৌ
 -  ২০৮ – ২২০ খ্রিস্টাব্দ চাও চাও
 -  ২২০ খ্রিস্টাব্দ চাও পি
ইতিহাস
 -  প্রতিষ্ঠা খ্রিস্টপূর্ব ২০৬ অব্দ
 -  গাইসিয়া যুদ্ধ; চীনে হান রাজত্ব শুরু খ্রিস্টপূর্ব ২০২ অব্দ
 -  সিন সাম্রাজ্য; হান রাজত্বকালে বিঘ্ন ৯ – ২৩ খ্রিস্টাব্দ
 -  চাও ওয়েইয়ের কাছে সিংহাসন ত্যাগ ২২০ খ্রিস্টাব্দ
আয়তন
 -  খ্রিস্টপূর্ব ৫০ অব্দ (পশ্চিম হানের সর্বোচ্চ)[১]  বর্গ কি.মি. ( বর্গ মাইল)
 -  ১০০ খ্রিস্টাব্দ (পূর্ব হানের সর্বোচ্চ)[১]  বর্গ কি.মি. ( বর্গ মাইল)
জনসংখ্যা
 •  ২ খ্রিস্টাব্দ[২] আনুমানিক  
মুদ্রা য়ুশু (五銖) মুদ্রা

পরিচ্ছেদসমূহ

ইতিহাসসম্পাদনা

চীনের প্রথম সামন্ততান্ত্রিক সাম্রাজ্য চীন সাম্রাজ্য (খ্রিস্টপূর্ব ২২১ - ২০৬ অব্দ) যুদ্ধরত রাজ্য কালের সাত যুদ্ধরত রাজ্য বিজয় করে চীনকে একত্রিত করে। কিন্তু প্রথম সম্রাট চিন শি হুয়াংয়ের মৃত্যুর চার বছরের মধ্যে এই সাম্রাজ্য বিদ্রোহের সম্মুখীন হয়ে বিলুপ্ত হয়।[৫] দুই প্রধান বিদ্রোহী চু রাজ্যের নেতা সিয়াং ইয়ু এবং হাংঝংয়ের নেতা লিউ বাং নিজেদের মধ্যে লড়াইয়ে লিপ্ত হয় কে চীনে অধিপত্য বিস্তার করবে। ফলে ১৮ রাজ্যে ফাটল ধরে এবং কেউ সিয়াং ইয়ু ও কেউ লিউ বাংকে সমর্থন প্রদান করে।[৬] যদিও সিয়াং ইয়ু নিজেকে যোগ্য নেতা হিসেবে প্রমাণ করে, কিন্তু লিউ বাং তাকে খ্রিস্টপূর্ব ২০২ অব্দে বর্তমান আনহুইয়ে গাইসিয়া যুদ্ধে পরাজিত করে। লিউ বাং তার অনুসারীদের পীড়াপীড়িতে হুয়াংদি (সম্রাট) উপাধি গ্রহণ করেন এবং সম্রাট গাওজু উপাধি নিয়ে খ্রিস্টপূর্ব ২০২ অব্দে সিংহাসনে আরোহণ করেন।[৭] চাং'আনকে হান সামাজ্যের নতুন রাজধানী করা হয়[৮]

পশ্চিম হানসম্পাদনা

পূর্ব হানসম্পাদনা

সমাজব্যবস্থা ও সংস্কৃতিসম্পাদনা

সরকার ব্যবস্থাসম্পাদনা

অর্থনীতিসম্পাদনা

বিজ্ঞান, প্রযুক্তি ও প্রকৌশলীসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Taagepera, Rein (১৯৭৯)। "Size and Duration of Empires: Growth-Decline Curves, 600 B.C. to 600 A.D."Social Science History3 (3/4): 128। doi:10.2307/1170959। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  2. Nishijima (1986), pp. 595–596.
  3. Zhou (2003), p. 34.
  4. Schaefer (2008), 279.
  5. Ebrey (1999), pp. 60–61.
  6. Loewe (1986), pp. 116–122.
  7. Davis (2001), pp. 44–46.
  8. Loewe (1986), p. 122.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা