শিশির হল কোনো শীতল বস্তুর উপর জলীয় বাষ্প জমা হয়ে সৃষ্ট বিন্দু।

ফুলের উপর শিশির বিন্দু
শিশির ভেজা পতঙ্গ

একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় বাতাস একটি নির্দিষ্ট সীমা পর্যন্ত জলীয় বাষ্প ধারণ করতে পারে। তাপমাত্রা বাড়লে যেমন ধারনক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, তেমনি তাপমাত্রা কমলে ধারনক্ষমতা হ্রাস পায়। সাধারণত সন্ধার পরে তাপমাত্রা কমে যায় এবং বাতাস জলীয় বাষ্প দ্বারা সম্পৃক্ত হয়ে থাকে। যদি তাপমাত্রা আরো কমে যায়, তখন বাতাস আর জলীয় বাষ্প ধরে রাখতে পারে না এবং তা শীতল বস্তুর উপর পানির কণা হিসেবে জমা হয়। এ পানির বিন্দু শিশির বিন্দু নামে পরিচিত (যেমন, ঘাসের উপর শিশির বিন্দু জমা হয়)।

শিশিরের পরিমাপ করার জন্য ড্রোজোমিটার নামক যন্ত্র ব্যবহার করা হয়।

শিশির সবসময় গোলাকার-

পৃষ্ঠটানের জন্য স্বল্প আয়তনের তরল পদার্থ সর্বদা গোলকের আকৃতি গ্রহণ করার চেষ্টা করে। তরলের মুক্ততল স্থিতিস্থাপক পর্দার ন্যায় কাজ করে এবং পৃষ্ঠতলের ক্ষেত্রফল সংকুচিত হয়ে থাকতে চায়। এজন্য তরল পদার্থ গোলকের আকৃতি নেয় কারন গোলকের পৃষ্ঠতলের ক্ষেত্রফল সর্বনিম্ন হয়ে থাকে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা