শাদি গাদিরিয়ান

ইরানী আলোকচিত্র শিল্পী

শাদি গাদিরিয়ান (জন্ম ১৯৭৪) একজন সমসাময়িক ইরানি আলোকচিত্রী। সমসাময়িক ইরানে বসবাসকারী একজন মুসলিম মহিলা হিসেবে তাঁর কাজ তাঁর অভিজ্ঞতা দ্বারা প্রভাবিত, কিন্তু একইসাথে তাঁর কাজ সারা বিশ্বের মহিলাদের জীবনের সাথে সম্পর্কিত। তাঁর কাজের মাধ্যমে, তিনি ইরানে বসবাসরত মহিলাদের জন্য ঐতিহ্য এবং আধুনিকতার মধ্যে টানাপোড়েন সম্পর্কে সমালোচনামূলক মন্তব্য করেন, পাশাপাশি দৈনন্দিন জীবনে বিদ্যমান অন্যান্য দ্বন্দ্ব নিয়েও তাঁর বক্তব্য থাকে। তিনি সেন্সরশিপ, ধর্ম, আধুনিকতা এবং মহিলাদের মর্যাদার বিষয়গুলি অনুসন্ধান করেন। গাদিরিয়ান ১৯৯৮ এবং ২০০১ সালে যথাক্রমে 'কাজার' এবং 'লাইক এভরি ডে' এই দুটি ধারাবাহিক কাজের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ করেছেন।[১] তিনি তেহরানে বসবাস করছেন এবং কাজ করছেন।

শাদি গাদিরিয়ান
জন্ম১৯৭৪ (বয়স ৪৭–৪৮)
তেহরান, ইরান
মাতৃশিক্ষায়তনইসলামী আজাদ বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাআলোকচিত্রী
দাম্পত্য সঙ্গীপেইমান হুশমান্দজাদে

প্রাথমিক জীবন এবং শিক্ষাসম্পাদনা

শাদি গাদিরিয়ান ১৯৭৪ সালে ইরানের তেহরানে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। ১৯৮৮ সালে উচ্চ বিদ্যালয় থেকে উত্তীর্ণ হবার পর, গাদিরিয়ান তেহরানের আজাদ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিল্প ও ফটোগ্রাফি অধ্যয়ন করেছেন, এবং ফটোগ্রাফিতে ডিগ্রি নিয়ে বিএ উত্তীর্ণ হয়েছেন। ২০০০ সালে, গাদিরিয়ান ইরানি ফটোগ্রাফার এবং লেখক পেইমান হুশমান্দজাদে কে বিবাহ করেন, তিনিও আজাদ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফটোগ্রাফি অধ্যয়ন করেছিলেন।

পৃথক প্রকল্পে মনোনিবেশ করার পাশাপাশি, গাদিরিয়ান বর্তমানে তেহরানের ফটোগ্রাফি যাদুঘরে কাজ করেন।

কাজ সমূহসম্পাদনা

শাদি গাদিরিয়ান এখন পর্যন্ত নয়টি আলোকচিত্র ক্রম তৈরি করেছেন, যাদের শিরোনাম মিস বাটারফ্লাই, নিল, নিল, বি কালারফুল, লাইক এভরি ডে, কাজার, কন্ট্রোল+অল্টার+ডিলিট, মাই প্রেস ফটো, আউট অফ ফোকাস এবং ওয়েস্ট বাই ইস্ট। সমসাময়িক ইরানে বসবাসকারী নারীরা যে সমস্যাগুলির মুখোমুখি হন, গাদিরিয়ান এই সিরিজগুলির মাধ্যমে সেগুলি নিয়ে কাজ করার এবং সেগুলিকা প্রকাশ করার চেষ্টা করেন। এই একই মহিলারা বিদেশ থেকে এসে যে নেতিবাচক বাঁধাধরা সমস্যাগুলির মুখোমুখি হন, তিনি তার ওপরে আলোকপাত করেছেন।[২]

কাজার (১৯৯৮)সম্পাদনা

গাদিরিয়ানের প্রথম সিরিজ, কাজার (১৯৯৮)এ, তিনি মূলত তাঁর বন্ধু এবং পরিবারের মহিলাদের প্রতিকৃতি সাজিয়েছিলেন, কাজার যুগের (১৭৮৫-১৯২৫) স্মরণীয় দৃশ্যপট এবং পোশাক ব্যবহার করে। কিন্তু তিনি তার সঙ্গে বুম বক্স, পেপসি ক্যান, ফোন বা ভ্যাকুয়ামের মতো সমসাময়িক পশ্চিমী সামগ্রী যুক্ত করেছিলেন। কাজার যুগের প্রেক্ষাপটে সাজানো প্রতিকৃতিগুলি ঐতিহ্যগতভাবে একটি আনুষ্ঠানিক পরিবেশে তোলা হয়েছিল, এবং ছবির পাত্র প্রায়ই অভিজাত মর্যাদার ইঙ্গিতবাহী মূল্যবান সম্পত্তি এবং বস্তু নিয়ে ছবি তুলত। ঐতিহ্যবাহী এবং সমসাময়িক এই দুটি দিক পাশাপাশি স্থাপন করে পরবর্তী সিরিজের জন্য একটি শুরুর দিক হিসাবে কাজ করেছিল, যা সমসাময়িক ইরানে দৈনন্দিন জীবনে বৈপরীত্যের প্রতিপাদ্যকে ঘিরে আরও বিকশিত হয়েছিল।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Shadi Ghadirian Press Release", guildindia.com 2010
  2. "Shadi Ghadirian"www.bm-lyon.fr। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৫-০৫ 
  3. Gallery, Saatchi। "Shadi Ghadirian - Artist's Profile - The Saatchi Gallery"www.saatchigallery.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৫-০৫ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

"Shadi Ghadirian: A Retrospective" Review