শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল

মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার শের-ই-বাংলা নগরে অবস্থিত সরকারি মালিকানাধীন তৃতীয় পর্যায়ের হাসপাতাল। দেশব্যাপী চিকিৎসা জ্ঞান ছড়িয়ে দেয়া ও দক্ষ ডাক্তার গড়ে তোলার জন্য ১৯৬৩ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে এর শয্যা সংখ্যা ৮৭৫ টি এবং এতে ৫০০জন শিক্ষার্থী ও ২০১০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছে।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
Shaheed Suhrawardy Medical College Hospital.jpg
শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল
স্থাপিত১৯৬৩ (1963)
অবস্থানশের-ই-বাংলা নগর, ঢাকা-১২০৭, বাংলাদেশ
ধরণসরকারি
বেড সংখ্যা৮৭৫ [১]
বর্তমান পরিচালকপ্রফেসর ড. এ.কে.এম. মুজিবুর রহমান
ডাকনামশসমেকহ
অফিশিয়া ওয়েবসাইটsuhrawardyhospital.gov.bd
স্থানাঙ্ক২৩°৪৬′০৯.১৮″ উত্তর ৯০°২২′১৬.৮৭″ পূর্ব / ২৩.৭৬৯২১৬৭° উত্তর ৯০.৩৭১৩৫২৮° পূর্ব / 23.7692167; 90.3713528স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৬′০৯.১৮″ উত্তর ৯০°২২′১৬.৮৭″ পূর্ব / ২৩.৭৬৯২১৬৭° উত্তর ৯০.৩৭১৩৫২৮° পূর্ব / 23.7692167; 90.3713528
নিবন্ধ দেখুন

ইতিহাসসম্পাদনা

শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের নির্মাণ পরিকল্পনা করেছেন স্থপতি লুই আই কান। শুরুতে হাস্পাতাল হিসেবে চিকিৎসা সেবা প্রদান করলেও দীর্ঘদিনের দাবির সুবাদে সেপ্টেম্বর ৫, ২০০৫ সালে বাংলাদেশ সরকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালকে মেডিকেল কলেজে রূপান্তরের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে এবং মে ৬, ২০০৬ সালে ১০০জন শিক্ষার্থী ভর্তি করানোর মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়া মেডিকেল কলেজ হিসেবে এর শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হয়।[২] পরবর্তিতে জুলাই ১, ২০০৯ সালে মেডিকেল কলেজের নাম শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ-এ পরিবর্তন করা হয়েছে।

লোকবলসম্পাদনা

মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৫০০জন শিক্ষার্থী এবং ২০০০জন কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২৪ জুন ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৪ 
  2. "Begum Khaleda Zia Medical College inaugurated"। ইউনাইটেড নিউজ বাংলাদেশ। ০৫/০৬/২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৩০, ২০১৪  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)