লি হার্ভে অসওয়াল্ড

সাবেক সামুদ্রিক যিনি জন এফ কেনেডিকে হত্যা করেছিলেন

লি হার্ভে অসওয়াল্ড (অক্টোবর ১৮, ১৯৩৯নভেম্বর ২৪, ১৯৬৩) প্রেসিডেন্ট জন এফ. কেনেডির আততায়ী। তিনি একজন প্রাক্তন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর সদস্য ছিলেন।

লি হার্ভে অসওয়াল্ড
Lee Harvey Oswald 1963.jpg
জন্ম(১৯৩৯-১০-১৮)১৮ অক্টোবর ১৯৩৯
মৃত্যু২৪ নভেম্বর ১৯৬৩(1963-11-24) (বয়স ২৪)
ডালাস, টেক্সাস, যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যুর কারণজ্যাক রুবি কর্তৃক পেটে গুলির আঘাত
সমাধিরোজ হিল সিমেট্রি
ফোর্ট ওয়ার্থ, টেক্সাস
৩২°৪৩′৫৭″ উত্তর ৯৭°১২′১২″ পশ্চিম / ৩২.৭৩২৪৫৫° উত্তর ৯৭.২০৩২২৩° পশ্চিম / 32.732455; -97.203223 (লি হার্ভে অসওয়াল্ডের সমাধিস্থল)
জাতীয়তামার্কিন
অপরাধের অভিযোগরাষ্ট্রপতি জন এফ. কেনেডি ও ডালাস পুলিশ অফিসার জে. ডি. টিপ্পিট হত্যাকান্ড
দাম্পত্য সঙ্গীমেরিনা অসওয়াল্ড পর্টার (বি. ১৯৬১)
সন্তান

নৌবাহিনীর চাকরি থেকে অব্যাহতি পাওয়ার কিছুদিন পর তিনি ১৯৫৯ সালের অক্টোবর মাসে সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে দলচ্যুত হন। ১৯৬২ সালের জুন পর্যন্ত তিনি বেলারুশের মিন্‌স্ক শহরে বসবাস করেন। সেখান থেকে তিনি তার রুশ স্ত্রী মেরিনা অসওয়াল্ড পর্টারকে নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে আসেন এবং ডালাসে বসবাস শুরু করেন।

কেনেডির হত্যাকান্ডের পর অসওয়াল্ডকে পুলিশ অফিসার জে. ডি. টিপ্পিট হত্যার আসামী হিসেবে গ্রেফতার করা হয়। টিপ্পিট কেনেডিকে গুলি করার আনুমানিক ৪৫ মিনিট পরে ডালাসের রাস্তায় হত্যা করা হয়। অসওয়াল্ডের বিরুদ্ধে পরে কেনেডি হত্যাকান্ডের আসামী হিসেবে মামলা করা হয়। অসওয়াল্ড কাউকে গুলি করার কথা অস্বীকার করেন এবং বলেন তাকে অন্যের অপরাধের দোষ দেওয়া হয়েছে।[১][২] দুই দিন পর অসওয়াল্ডকে সিটি জেল থেকে কাউন্টি জেলে নেওয়ার পথে ডালাসের এক নাইটক্লাব মালিক জ্যাক রুবি তাকে সরাসরি সম্প্রচাররত টেলিভিশন ক্যামেরার সামনে গুলি করে।

কেনেডি হত্যার পরে পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর অসওয়াল্ডের ছবি

তথ্যসূত্রসম্পাদনা