লারা ক্রফ্‌ট: টুম্ব রেইডার

লারা ক্রফ্‌ট: টুম্ব রেইডার (ইংরেজি: Lara Croft: Tomb Raider) হচ্ছে টুম্ব রেইডার নামক ভিডিও গেম ধারাবাহিকে চলচ্চিত্ররূপ।এটির পরিচালক সাইমন ওয়েস্ট এবং চলচ্চিত্রটিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি, লারা ক্রফ্‌ট চরিত্রে। যুক্তরাষ্ট্রে ১৫ জুন, ২০০১-এ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়।

লারা ক্রফ্‌ট: টুম্ব রেইডার
লারা ক্রফ্‌ট- টুম্ব রেইডার চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
পরিচালকসাইমন ওয়েস্ট
প্রযোজকলরেন্স গর্ডন
লয়েড লেভিন
কলিন উইলসন
রচয়িতাচলচ্চিত্ররূপ:
প্যাট্রিক ম্যাসেট
জন জিনম্যান
গল্প:
সারা বি. কুপার
মাইক ওয়ের্ব
মাইকেল কলেরি
সাইমন ওয়েস্ট
শ্রেষ্ঠাংশেঅ্যাঞ্জেলিনা জোলি
জন ভইট
লায়েন গ্লিন
নোয়া টেইলর
ড্যানিয়েল ক্রেইগ
সুরকারগেইমি রেভেল
চিত্রগ্রাহকপিটার মেনজিস জুনিয়র
সম্পাদকডালাস পুয়েট
গ্লেন স্কেন্টেলবুরি
এরিক স্ট্র্যান্ড
মার্ক ওয়ার্নার
স্টুয়ার্ড বেয়ার্ড
পরিবেশকপ্যারামাউন্ট পিকচার্স
ইউনাইটেড ইন্ট্যারন্যাশনাল পিকচার্স
মুক্তিযুক্তরাষ্ট্র
১১ জুন, ২০০১
অস্ট্রেলিয়া
২১ জুন, ২০০১
যুক্তরাজ্য
৬ জুলাই, ২০০১
দৈর্ঘ্য১০১ মিনিট
দেশযুক্তরাষ্ট্র
যুক্তরাজ্য
ভাষাইংরেজি
নির্মাণব্যয়৮০৫ কোটি টাকা
আয়২৭,৪৭,০৩,৩৪০

চলচ্চিত্রটির ধারাবিহক দ্বিতীয় পর্ব লারা ক্রফ্‌ট টুম্ব রেইডার: দ্য ক্রেডেল অফ লাইভ, যা মুক্তি পায় ২০০৩ সালে।

মুক্তিসম্পাদনা

প্রাথমিক অবস্থানসম্পাদনা

এই ছবিটি সাধারণভাবে না-বোধক মন্তব্য লাভ করে, রটেন টম্যাটোস-এ এর মান ছিলো ১৯%, ১৪০ জন সমালোচকের মধ্যে ২৭ জন হ্যাঁ-বোধক মত প্রকাশ করেন, যার গড় দশে ৩.৯। সর্বসাধারণের ঐকমত্য হচ্ছে, "লারা ক্রফ্‌ট চরিত্রের জন্য অ্যাঞ্জেলিনা জোলি সম্পূর্ণ ঠিক আছে, কিন্তু সে ছবিটিকে কাণ্ডজ্ঞানহীন গল্প ও অ্যাকশন দৃশ্যগুলো থেকে বাঁচাতে পারে না, কারণ কোনো আবেগী প্রভাব এখানে ছিলো না"।[১] একটি অপ্রত্যাশিত প্রশংসা পাওয়া যায় রজার এবার্টের কাছ থেকে। তিনি এই ছবিটিকে চারের মধ্যে তিন তারকা দেন।

বক্স অফিস অবস্থানসম্পাদনা

টুম্ব রেইডার-এর অভিষেক হয় প্রথম দিন ৩৩৬ কোটি টাকা ব্যবসা করার মাধ্যমে। এটি প্যারামাউন্ট পিকচার্সের দ্বিতীয় বৃহত্তম ব্যবসা সফল অভিষেক, ও ২০০১ সালে চতুর্থ বৃহত্তম অভিষেক। এটি পূর্বের নারী প্রধান চলচ্চিত্র চার্লি'স অ্যাঞ্জেলস-এর প্রথম দিন ২৮০ কোটি টাকা ব্যবসার রেকর্ড ভেঙে দেয়, এবং এটিই এখন পর্যন্ত ভিডিও গেমের চলচ্চিত্ররূপ করা চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে সবচেয়ে সফল; যার বিশ্বব্যাপী আয় ২,১০০ কোটি টাকা।[২][৩]

পুরস্কার ও মনোনয়নসম্পাদনা

এ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য অ্যাঞ্জেলিনা জোলি গোল্ডেন র‌্যাস্পবেরি পুরস্কারে সবচেয়ে বাজে অভিনেত্রী (Worst Actress)-এর জন্য মনোনয়ন পান।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Lara Croft: Tomb Raider"Rotten TomatoesIGN Entertainment। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১, ২০০৯ 
  2. "Weekend Box Office" 
  3. "Box Office Mojo chart" 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা