র‍্যাভেনশো কলেজিয়েট স্কুল

পাবলিক হাই স্কুল

রাভেনশ কলেজিয়েট স্কুল ওড়িশার প্রাচীনতম স্কুল যা ১৮৫১ সালে ভারতের ওড়িশার কটক জেলাতে টমাস এডওয়ার্ড রাভেনশ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। [১] এটি রাভেনশাহ দ্বারা প্রতিষ্ঠিত তিনটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে একটি, অন্য দুটি রাভেনশ গার্লস স্কুল এবং রাভেনশ কলেজ, যা এখন রাভেনশ বিশ্ববিদ্যালয় হয়ে উঠেছে।[২]

রাভেনশ কলেজিয়েট স্কুল , কটক
ରେଭେନ୍‌ସା କଲିଜିଏଟ ସ୍କୁଲ, କଟକ
অবস্থান
মানচিত্র
তথ্য
ধরনসরকারি উচ্চ বিদ্যালয়
নীতিবাক্যEducation for the Society.
প্রতিষ্ঠিত১৮৫১; ১৭৩ বছর আগে (1851)
প্রতিষ্ঠাতাটমাস এডওয়ার্ড রেভেনশ
কর্মকর্তা১০+
অনুষদ২৫+
শ্রেণী৪-১০ শ্রেণি
লিঙ্গবালক এবং বালিকা
ভর্তি৮০০+
ভাষাOdia
শিক্ষায়তন8 Acres
ক্যাম্পাসের ধরনUrban
প্রকাশনাThe Chhatrabandhu
অন্তর্ভুক্তিB.S.E.O

ইতিহাস

সম্পাদনা

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠার সঠিক তারিখ সম্পর্কে কিছু বিভ্রান্তি থাকলেও ১৮৫১ সালে রাভেনশ কলেজিয়েট স্কুল প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তৎকালীন বৃহত্তম শহর ওডিশার কটকে

ক্যাম্পাস

সম্পাদনা

বিদ্যালয় পরিচালিত বর্তমান ভবন ১৯০৫ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। ১৯০৫ এর আগে স্কুলটি ওড়িশা বার কাউন্সিলের সংলগ্ন ভবনগুলি থেকে পরিচালিত হয়েছে। ২০০৬ সালে ওড়িশা সরকার ৪ কোটি টাকা অনুমোদন দেয়। বিদ্যালয়টি উন্নয়নের জন্য ৪ কোটি টাকা অনুদান দেওয়া হলেও পরে অজানা কারণে স্ক্র্যাপ হয়ে যায়। বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসটি কাঠজোদির নদীর তীরে একর জমিতে বিস্তৃত। বিদ্যালয়ের নিকটবর্তী অঞ্চলে কয়েকটি উচ্চ-প্রোফাইল অফিস যেমন ওডিশার হাইকোর্ট, কাটকের জেলা কালেক্টরেট, ওড়িশার রাজ্য ট্রেজারি এবং ওড়িশা রাজস্ব বোর্ড উপস্থিত রয়েছে। বিদ্যালয়টির ক্যাম্পাসের ভিতরে একটি খেলার মাঠ রয়েছে এবং স্কুল থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে সানশাইন ফিল্ডস নামে পরিচিত আরও একটি মিনি স্টেডিয়াম রয়েছে। বিদ্যালয়ের দুটি হোস্টেল রয়েছে যেখানে ২০০ জন ধারণ সমন্বিত ক্ষমতা রয়েছে। বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের ভিতরে দুটি মিলনায়তন রয়েছে।

উল্লেখযোগ্য প্রাক্তন ছাত্র

সম্পাদনা
  • সুভাষ চন্দ্র বসু ১৮৩৭–১৯৪৫, ভারতীয় জাতীয়তাবাদী নেতা এবং ভারতের স্বাধীনতা যোদ্ধা ।

তথ্যসূ্ত্র

সম্পাদনা
  1. "Ravenshaw Collegiate School, Cuttack"। Government of Odisha। ২০১৩-০৪-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৪-১২ 
  2. "Some less known facts about T E Ravenshaw"Ravenshaw University। ২০১২-১০-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০৪-১২