রুয়াল দাল (নরওয়েজীয়: Roald Dahl) (সেপ্টেম্বর ১৩, ১৯১৬ - নভেম্বর ২৩, ১৯৯০)[১] একজন ওয়েল্‌সীয় ঔপন্যাসিক এবং ছোট গল্প লেখক; [২] তিনি বড়-ছোট সবার জন্যই লিখেছেন। তার বই বিশ্বব্যাপী ২৫০ মিলিয়নেরও বেশি কপি বিক্রি হয়েছে। [৩]

রুয়াল দাল
রুয়াল দাল ও প্যাট্রিশিয়া নিল, ছবি: কার্ল ভ্যান ভেচেন, ১৯৫৪
রুয়াল দাল ও প্যাট্রিশিয়া নিল, ছবি: কার্ল ভ্যান ভেচেন, ১৯৫৪
জন্মসেপ্টেম্বর ১৩ ১৯১৬
লান্দাফ, কার্ডিফ, ওয়েল্‌স্‌
মৃত্যুনভেম্বর ২৩ ১৯৯০
গ্রেট মিসেন্ডেন, বাকিংহ্যামশায়ার, ইংল্যান্ড
পেশাঔপন্যসিক, ছটো-গল্প লেখ,
জাতীয়তাব্রিটিশ
ধরনশিশু সন্তান
ওয়েবসাইট
http://www.roalddahl.com/

তার সব থেকে বিখ্যাত বইয়ের মধ্যে চার্লি অ্যান্ড দ্য চকলেট ফ্যাক্টোরি, জেমস অ্যান্ড দ্য জায়েন্ট পীচ (James and the Giant Peach), মাটিল্ডা (Matilda), দ্য উইচেস (The Witches), দ্য বি.এফ.জি (The BFG) এবং কিস্‌ কিস্‌ (Kiss Kiss) রয়েছে। ইংরেজিতে অনেক সময় তার নাম রোল্ড বা রোয়াল্ড ডাল হিসেবে উচ্চারণ করা হয়। তার অনেক বইয়ে কুয়েন্টিন ব্লেক (Quentin Blake) ছবি এঁকেছেন।

জীবনসম্পাদনা

রুয়াল দাল ওয়েল্সের রাজধানী কার্ডিফে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবা ও মা, হারাল্দ দাল ও সোফীয়ে মাগদালিয়েনে দাল, ছিলেন নরওয়েজীয়। তার যখন ৪ বছর বয়স, তার ৭-বছরের বোন, আস্ত্রি এ্যাপেন্ডিসাইটাসে মারা যায়। একমাস পরে তার পিতাও ৫৭-বছর বয়সে নিউমোনিয়ায় মারা যান। তবু তার মা আবার নরওয়েতে ফিরে যাওয়ার বদলে যুক্তরাজ্যেই থেকে যান, কারণ রুয়াল দালের বাবা চেয়েছিলেন তার সব ছেলেমেয়েরা একটি বিলাতি স্কুলে লেখাপড়া করবে। প্রথমে রুয়াল দাল ওয়েল্সেই হ্লান্দাফ ক্যাথিড্রাল বোর্ডিং স্কুলে গেছিলো। তার বয়স যখন আট বছর, তিনি চার বন্ধু নিয়ে মিষ্টির দোকানের দোকানদারের একটি মিষ্টির টবে মরা ইঁদুর রেখেছিলেন, সেটার জন্য স্কুলে তাকে লাঠি দিয়ে মেরেছিলেন হেডটিচার। তারপর তিনি রেপ্টন স্কুল ডার্বিশায়ারে গিয়ে তিনি একটি প্রীফেক্টের পার্সনাল সার্ভেন্ট ছিলেন। তিনি অনেক লম্বাও ছিলেন (১.৯৮ মিটার), এবং প্রচুর খেলাধুলায় ভালো ছিলেন, বিশেষ করে ফাইভ্‌স, স্কুয়াশ ও ফুটবলে। তার টীনেজ বছরগুলয় সে প্রতি বছরে নরওয়েতে যেতেন তার পরিবারের সঙ্গে। ক্যাডবেরি চকলেট থেকে ওদের স্কুলে সাম্পেল পাঠাতো, ও তার থেকে ইন্সপিরেশন পেয়েছিলো "চার্লি অ্যান্ড দ্য চকলেট ফ্যাক্টোরি"র জন্য। স্কুলের পরে তিনি বিশ্ববিদ্যলয়ে না গিয়ে শেল তৈল কোম্পানিতে তিনি কাজ পেয়েছিলেন। তাঁকে আফ্রিকার তাঙানিকা এলাকায় পাঠিয়েছিলো, তিনি যেখানে অনেক জিনিস আবিষ্কার করেছিলেন, তিনি অনেক সাপ দেখেছিলো। তারপর তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটিশ রয়াল এয়ার ফোর্সের সঙ্গে কাজ করতে গেলেন। রুয়াল দালের একটি বই: "ছেলে, শৈশবের গল্প" (Boy, tales of Childhood) এবং "গোয়িং সোলো" (Going Solo)-বইগুলোতে তার আত্মজীবনী আছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Roald Dahl | Biography & Books | Britannica"www.britannica.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০১-১৩ 
  2. Sturrock 2010, পৃ. 19।
  3. Nunis 2016

বহিঃসংযোগসম্পাদনা