রাফায়েল নাদাল

স্পেনীয় টেনিস খেলোয়াড়

রাফায়েল "রাফা" নাদাল পারেরা (জন্ম ৩ জুন, ১৯৮৬) স্পেনের একজন পেশাদার টেনিস খেলোয়াড় যিনি বর্তমানে পুরুষ এককের ২ নম্বরে অবস্থান করছেন।“লাল কোর্টের রাজা” বা “কিং অফ ক্লে” বলে পরিচিত নাদালকে সর্বকালের সেরা ক্লে-কোর্ট খেলোয়াড় বলে অভিহিত করা হয়। সব ধরনের কোর্টে বিস্তৃত অর্জনের জন্য নাদালকে বিশ্ব টেনিসের ইতিহাসের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়ের মর্যাদা দেয়া হয়।অনেকের মতে উনিই সর্বকালের সেরা কারণ নাদাল যৌথভাবে টেনিসের সর্বোচ্চ গ্র্যান্ডস্ল্যাম এর মালিক।

রাফায়েল নাদাল
রাফায়েল নাদাল হাসছেন
২০১৬ সালে রাফায়েল নাদাল
পূর্ণ নামরাফায়েল নাদাল পারেরা
দেশ স্পেন
বাসস্থানমানাকর, বেলিয়ারিক আইল্যান্ড, স্পেন
জন্ম (1986-06-03) ৩ জুন ১৯৮৬ (বয়স ৩৪)
মানাকর, বেলিয়ারিক আইল্যান্ড, স্পেন
উচ্চতা১.৮৫ মিটার (৬ ফুট ১ ইঞ্চি)
পেশাদারিত্ব অর্জন২০০১
খেলার ধরনবাঁহাতি (দুই হাতের ব্যাকহ্যান্ড), জন্মগতভাবে ডানহাতি
প্রশিক্ষকটনি নাদাল (১৯৯০–২০১৭)[১]
ফ্রান্সিসকো রইগ (২০০৫–)[২]
কার্লোস মোয়া (২০১৬–)[৩]
পুরস্কারUS$১০,০৫,৬৪,৫৯৮
ওয়েবসাইটrafaelnadal.com
একক
পরিসংখ্যান৯০৩–১৮৭ (৮২.৮৪%)
শিরোপা৭৯ (ওপেন যুগে চতুর্থ)
সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কিং (১৮ আগস্ট ২০০৮)
বর্তমান র‌্যাঙ্কিং (২৫ জুন ২০১৮)
গ্র্যান্ড স্ল্যাম এককের ফলাফল
অস্ট্রেলিয়ান ওপেনজয়ী (২০০৯)
ফ্রেঞ্চ ওপেনজয়ী (২০০৫, ২০০৬, ২০০৭, ২০০৮, ২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৩, ২০১৪, ২০১৭, ২০১৮,২০১৯)
উইম্বলডনজয়ী (২০০৮, ২০১০)
ইউএস ওপেনজয়ী (২০১০, ২০১৩, ২০১৭,২০১৯)
অন্যান্য প্রতিযোগিতা
ট্যুর ফাইনালফাইনালিস্ট (২০১০, ২০১৩)
অলিম্পিক গেমসজয়ী (২০০৮)
দ্বৈত
পরিসংখ্যান১৩১–৭২
শিরোপা১১
সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কিং২৬ (৮ আগস্ট ২০০৫)
বর্তমান র‌্যাঙ্কিং– (১৯ মার্চ ২০১৮)[৪]
গ্র্যান্ড স্ল্যাম দ্বৈতের ফলাফল
অস্ট্রেলিয়ান ওপেন৩য় রাউন্ড (২০০৪, ২০০৫)
উইম্বলডন২য় রাউন্ড (২০০৫)
ইউএস ওপেনসেমিফাইনাল (২০০৪)
অন্যান্য দ্বৈত প্রতিযোগিতা
অলিম্পিক গেমসজয়ী (২০১৬)
দলগত প্রতিযোগিতা
ডেভিস কাপজয়ী (২০০৪, ২০০৮, ২০০৯, ২০১১)
সর্বশেষ হালনাগাদ: ২৫ জুন ২০১৮

নাদাল ২০ টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা (১৩ টি ফ্রেঞ্চ ওপেন শিরোপা, ২টি উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ, ৪টি ইউএস ওপেন ও একটি অস্ট্রেলিয়ান ওপেন) জিতেছেন। এছাড়াও তিনি ২০০৮ অলিম্পিকে স্বর্ণ পদক (একক), ২০১৬ অলিম্পিকে স্বর্ণ পদক (দ্বৈত),৩৫ টি টেনিস মাস্টার্স সিরিজ (এটিপি ১০০০) শিরোপা, ২১ টি এটিপি-৫০০ মাস্টার্স জিতেছেন ।স্পেনের হয়ে তিনি পাচটি ডেভিস কাপ শিরোপা (২০০৪, ২০০৮, ২০০৯, ২০১১,২০২০) জয়লাভ করেন। বাঁহাতি এই খেলোয়াড় উন্মুক্ত যুগের ষষ্ঠ বাক্তি হিসেবে ১০০ টির উপরে এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুর এর ফাইনালে খেলার গৌরব অর্জন করেন। নাদাল ২০১১ সালে মর্যাদাপূর্ণ “Laureus Sportsman of the Year” এর খেতাব অর্জন করেন।

নাদাল এবং ম্যাটস উইল্যান্ডার দুজন মাত্র ব্যক্তি যারা তিনটি ভিন্ন ভিন্ন ধরনের কোর্টে (হার্ড, ক্লে এবং ঘাস) অন্তত ২ টি করে গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জিতেছেন। নাদাল বিশ্বের একমাত্র পুরুষ টেনিস খেলোয়াড় যিনি কিনা টানা ১০ বছর (২০০৫-২০১৪) কমপক্ষে একটি করে গ্র্যান্ড স্লাম এবং একটি মাস্টার্স ১০০০ সিরিজ জিতেছেন। ২০১২ সালে প্রথম ও একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে টানা ৮ টি মন্তে-কার্লো মাস্টার্স জিতেন। ২০১৭ সালের মন্তে-কার্লো মাস্টার্স জিতে তিনি গুইলারমো ভিলাসের ৪৯ টি ক্লে-কোর্ট শিরোপা জেতার রেকর্ড ভেঙ্গে দেন। নাদাল ইতিহাসের একমাত্র বাক্তি যিনি কিনা এক টুর্নামেন্ট ১০ বার জিততে সক্ষম হয়েছেন। ২০১৭ সালে তিনি ১০ম বারের মতো মন্তে-কার্লো মাস্টার্স ও বার্সেলোনা ওপেন জিতেন। ৭টি ফ্রেঞ্চ ওপেন শিরোপা জিতে তিনি ২০১২ সালে বিয়র্ন বোর্গের রেকর্ড ভেঙে দেন। ২০১৭ সালেন ফ্রেঞ্চ-ওপেন জিতে নাদাল একমাত্র পুরুষ খেলোয়াড় হিসেবে কোন গ্র্যান্ড-স্লাম ১০ম বারের মতো জেতার বিরল খ্যাতি অর্জন করেন।

২০১০ সালের ইউ এস ওপেনের শিরোপা জিতে তিনি ইতিহাসের সপ্তম খেলোয়াড় হিসেবে এবং ওপেন যুগের সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় (২৪ বছর) হিসেবে ক্যারিয়ার গ্র্যান্ড স্ল্যাম (চারটি গ্র্যান্ড স্ল্যামের শিরোপা) অর্জন করেছেন। তিনি ইতিহাসের দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে (আন্দ্রে আগাসির পর) "ক্যারিয়ার গোল্ডেন স্ল্যাম" (চারটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম এবং অলিম্পিক স্বর্ণ পদক) জিততে সক্ষম হয়েছেন । নাদাল হলেন ওপেন যুগের একমাত্র টেনিস খেলোয়াড় যিনি একই বছরে ফ্রেঞ্চ ওপেন, কুইন্স চ্যাম্পিয়নশিপউইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ জিততে সক্ষম হয়েছেন। ।

১৮ অাগস্ট, ২০০৮ সালে নাদাল প্রথমবারের মতো পুরুষ এককের র‌্যাঙ্কিং-এ শীর্ষে উঠেন। তিনি আগস্ট ১৮, ২০০৮ থেকে ৫ জুলাই, ২০০৯ পর্যন্ত বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং-এ ১ নম্বরে ছিলেন।

ক্যারিয়ারের অনেকটা সময় জুড়েই নাদাল, রজার ফেদেরারের সাথে দ্বৈরথে অবতীর্ণ থেকেছেন যাকে অনেক সমালোচক টেনিস ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ দ্বৈরথ বলে মনে করেন। তারা হলেন একমাত্র খেলোয়াড় যারা ৯টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ফাইনালে পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছেন। ২০০৬ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত প্রতিটি ফ্রেঞ্চ ওপেন ও উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ, ২০০৯ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ২০১১ সালের ফ্রেঞ্চ ওপেন ফাইনালে এবং ২০১৭ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন তারা মুখোমুখি হন। এর মধ্যে ফেদেরার ২০০৬ ও ২০০৭ সালের উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল এবং ২০১৭ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতেছেন। বাকি ৬টি ফাইনালে নাদাল বিজয়ী হয়েছেন। ২০০৮ সালের উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল ম্যাচটিকে অনেক টেনিস বিশেষজ্ঞ সর্বকালের সেরা ম্যাচ বলে অভিহিত করেন, যেটাতে নাদাল পূর্ববর্তী ৫ বছরের চ্যাম্পিয়ন ফেদেরারকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো উইম্বলডন চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা জেতেন। নাদাল বিশ্বের দুই নম্বর খেলোয়াড় হিসেবে রেকর্ড সংখ্যক ১৬০ সপ্তাহ ফেদেরারের পেছনে অবস্থান করেছিলেন। ফেদেরারের বিরদ্ধে খেলা ৩৭ টি ম্যাচের মধ্যে নাদাল ২৩ টিতে বিজয়ী হয়েছেন।


টেনিস এর ইতিহাসে অনেক খেলোয়াড় আসবে যাবে কিন্তু একজন মানসিক দৃঢ়তায় অদ্বিতীয় রাফায়েল নাদাল আর আসবে না।

  1. "Report: Toni Nadal to stop traveling with Rafa at the end of '17" 
  2. "Francisco Roig: "In Some Ways, This Is Our Biggest Goal" - ATP World Tour - Tennis"atpworldtour.com। সংগ্রহের তারিখ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  3. "Rafael Nadal hires Carlos Moya as he bids to revive injury-hit career"CNN। ১৭ ডিসেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  4. "ATP World Tour – Rafael Nadal Profile"ATP World Tour। সংগ্রহের তারিখ ১৬ আগস্ট ২০১৬