রবার্ট ব্লেক হলেন বাঙালি সাহিত্যিক দীনেন্দ্রকুমার রায়ের সৃষ্ট একটি জনপ্রিয় গোয়েন্দা চরিত্র। তিনি লন্ডনের অধিবাসী।

ইতিহাসসম্পাদনা

ডিটেকটিভ রবার্ট ব্লেকের এই গল্পগুলি স্যাক্সটন ব্লেকের অনুবাদ বা ভাবানুবাদ। দীনেন্দ্রকুমার রায় ধার করেছিলেন ব্রিটিশ পপুলার সিরিজ শ্যাক্সটন ব্লেকের কাহিনী, যেগুলি প্রায় একশো বছরব্যাপী লন্ডন তথা ইংল্যান্ডে অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিল। সুলেখক দীনেন্দ্রকুমার রায় নিজের ভাষায় বাংগালী পাঠকের মনের মতো করে সাজিয়ে দেন কাহিনীগুলিকে। এই গল্পে গঙ্গা বা চৌরঙ্গীর বদলে থাকতো টেমস নদী, পিকাডেলি ইত্যাদি। গল্প পড়ার সঙ্গে সঙ্গে ইংল্যাণ্ডের বিভিন্ন জায়গার সঙ্গে পরিচয় ঘটে যেত পাঠকগোষ্ঠীর। স্যাক্সটন গোয়েন্দার লেখক একজন নন, বিভিন্ন সময় বিভিন্ন লেখক লিখে বাঁচিয়ে রেখেছিলেন গোয়েন্দা সিরিজ। কমিক স্ট্রিপ, রেডিও প্রোগ্রাম, ইত্যাদিতে স্যাক্সটন গোয়েন্দা জনপ্রিয় ছিল। নন্দনকানন সিরিজ বা রহস্য লহরী সিরিজে ডিটেকটিভ রবার্ট ব্লেককে ইংরেজি থেকে অনুবাদের মাধ্যমে বাংলার অল্পবয়েসী ছেলেমেয়েদের মধ্যে পরিচিত করে প্রসিদ্ধ হন দীনেন্দ্রকুমার। এই সিরিজের প্রকাশিত উপন্যাসের সংখ্যা ২১৭টি।[১]

চরিত্র চিত্রণসম্পাদনা

রবার্ট ব্লেক একজন সাহসী শক্তিশালী ও হাতাহাতিতে বহুল পোক্ত গোয়েন্দা চরিত্র। তার সহকারী স্মিথ। সে ব্লেককে কর্তা বলে সম্বোধন করে। কাহিনীগুলি লন্ডন ও সংলগ্ন এলাকায় চিত্রিত। রবার্ট ব্লেক শার্লক হোমসের মতোই লন্ডনের বেকার স্ট্রীটের বাসিন্দা।[২]

কাহিনীসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. আশিষ পাঠক (১৪ মার্চ ২০১৪)। "বড়দের গোয়েন্দারা কোথায় গেল"। আনন্দবাজার পত্রিকা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০১৭ 
  2. "Bengali Mystery Literature"www.abasar.net। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-২৮