রঘুবরণ

ভারতীয় অভিনেতা

রঘুবরণ (১৯৫৮-২০০৮) ভারতের একজন তামিল চলচ্চিত্র অভিনেতা ছিলেন। মূলত তামিল চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও তিনি তেলুগু, কন্নড় এবং মালয়ালম চলচ্চিত্রেও কাজ করেছিলেন, এবং হিন্দি চলচ্চিত্র জগতেও তার পদচারণা ছিলো তবে তিনি তামিল চলচ্চিত্র জগতেই মূলত বেশি পরিচিতি পেয়েছিলেন জগতটিতে বেশি সময় দেওয়ার কারণে।[১]

আর ভি রঘুবরণ
রঘুবরণ.jpeg
জন্ম
রঘুবরণ ভেলাইয়ুধাম

(১৯৫৮-১২-১১)১১ ডিসেম্বর ১৯৫৮
কোল্লেংগোড়ে, পালাক্কাড়, কেরালা, ভারত
মৃত্যু১৯ মার্চ ২০০৮(2008-03-19) (বয়স ৪৯)
পেশাচলচ্চিত্র অভিনেতা
উচ্চতা৬ ফুট ৩ ইঞ্চি
দাম্পত্য সঙ্গীরোহিনী (বি. ১৯৯৬; বিচ্ছেদ. ২০০৪)
সন্তানঋষি বরণ (১৯৯৮ সালে জন্ম)
পিতা-মাতাবাবাঃ ভেলুইয়ুধাম নায়ার
মাঃ কস্তুরী

চলচ্চিত্র ছাড়াও রঘুবরণ তামিল টেলিভিশন নাটকেও অভিনয় করেছিলেন, তার অভিনয় করা নাটক ওরু মণিদানিন কাদাই দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলো, নাটকটি সান টিভিতে প্রচারিত হতো। রঘুবরণ নাটকটিতে একজন সচ্ছল পুরুষের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন যে নারীসঙ্গের অভাবে প্রতিদিন মদ পান করে, তার অভিনয়, কণ্ঠ, কথা বলার শৈলী, পোশাক, সৌন্দর্য - এগুলো নাটক-দর্শকদেরকে দারুণ আকর্ষিত করেছিলো।

একটি মালয়ালাম ভাষার চলচ্চিত্রে রঘুবরণ কাহিনীর প্রয়োজনে সম্পূর্ণ নগ্ন হয়েছিলেন, চলচ্চিত্রটির নাম ছিলো দাইভাথিন্থে ভিকরুথিকাল, চলচ্চিত্রটি ১৯৯২ সালে মুক্তি পেয়েছিলো এবং এটি ছিলো এম মুকন্দের একই নামের একটি উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত। মালয়ালম চলচ্চিত্রের খ্যাতিমান পরিচালক লেনিন রাজেন্দ্র ছিলেন চলচ্চিত্রটির পরিচালক।

২০০৮ সালে রঘুবরণ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান এবং তামিল চলচ্চিত্রের কিংবদন্তী অভিনেতা রজনীকান্ত রঘুবরণের নিজের সুর করা এবং গাওয়া ছয়টি গান রঘুবরণের সাবেক স্ত্রী রোহিনী (২০০৪ সালে তালাক) এবং পুত্র ঋষি বরণের কাছে তুলে দিয়েছিলেন।[২]

মূলত তামিল চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও রঘুবরণের মাতৃভাষা আসলে ছিলো মালয়ালম[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Actor Raghuvaran passes away- Hindustan Times"। ১২ ডিসেম্বর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "Did you know Raghuvaran was a musician? Rajinikanth launches late actor's music album"The News Minute। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ 
  3. http://cinidiary.com/people.php?pigsection=Actor&picata=1&no_of_displayed_rows=47&no_of_rows_page=10&sletter=

বহিঃসংযোগসম্পাদনা