মুসা বিন শমসের

বাংলাদেশী ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি

মুসা বিন শমসের (অথবা, “প্রিন্স মুসা”) হলেন একজন বাংলাদেশী ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি; যাকে বাংলাদেশের জনশক্তি রপ্তানির জনক হিসেবেও মনে করা হয়ে থাকে। তিনি ১৯৭০ ও ১৯৮০-এর দশকে আন্তর্জাতিকভাবে অস্ত্র সরবরাহকারী হিসেবেও ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছিলেন।[১][২][৩][৪][৫] বর্তমানে তিনি ড্যাটকো গ্রুপের চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ডঃ মুসা বিন শমসের
জন্ম(১৯৪৫-১০-১৫)১৫ অক্টোবর ১৯৪৫
জাতীয়তাবাংলাদেশী
মাতৃশিক্ষায়তনক্যালিফোর্নিয়া স্টেট ইউনিভার্সিটি
পেশাচেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ড্যাটকো গ্রুপ
বাসস্থানঢাকা, বাংলাদেশ
দাম্পত্য সঙ্গীকানিজ ফাতেমা চৌধুরী
সন্তান
ওয়েবসাইটপ্রিন্স মুসা

জন্ম ও শিক্ষাসম্পাদনা

মুসা ১৯৪৫ সালের ১৫ অক্টোবর তৎকালীন পূর্ব পূর্ব পাকিস্তানের (বর্তমান বাংলাদেশ) ফরিদপুরের এক মধ্যবিত্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। চার ভাই এবং দুই বোনের মাঝে তিনি পিতা-মাতার তৃতীয় পুত্র সন্তান। তার বাবা শমসের আলী মোল্লা স্থানীয় ব্রিটিশ সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তা ছিলেন।[৬][৭]

ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডসম্পাদনা

মুসা তরুণ বয়সেই ব্যবসা শুরু করেন। তার প্রথম ব্যবসায়িক জীবনে ড্যাটকো নামের বৃহৎ ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। মুসা জনশক্তি রপ্তানিতে দেশের একজন দিকপাল হিসেবে পরিচিতি পান। তিনি বাংলাদেশের পদ্মা সেতু নির্মাণেও ব্যক্তিগত বিনিয়োগের ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন।

অনুদানসম্পাদনা

মুসা ১৯৯৭ সালে যুক্তরাজ্যের নির্বাচনে লেবার পার্টির টনি ব্লেয়ার নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর জন্য অনুদান দিতে চেয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Dr Moosa Bin Shamsher:A great visionary pathfinder of BD"। businessnews24bd.com। সংগ্রহের তারিখ ১২ নভেম্বর ২০১৩ 
  2. "10 Most Notorious Arms Dealers in Modern History"। businesspundit.com। সংগ্রহের তারিখ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩ 
  3. "Moosa Bin Shamsher among10 most notorious arms dealers in modern history"http://businessnews24bd.com। সংগ্রহের তারিখ ২৭ অক্টোবর ২০১৩  |প্রকাশক= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  4. "Documentary by Fuji TV Inc. of Japan on billionaire business tycoon Prince Moosa"http://businessnews24bd.com। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৩  |প্রকাশক= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  5. [১][অকার্যকর সংযোগ]
  6. মুসা বিন শমসেরের ব্যাংক হিসাব তলব,নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলাদেশ প্রতিদিন। ঢাকা থেকে প্রকাশের তারিখ: ২৪-০৬-২০১১ খ্রিস্টাব্দ।
  7. বিশ্ব বরেণ্য ধনকুবের ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৬ জানুয়ারি ২০১৩ তারিখে

বহিঃসংযোগসম্পাদনা