মানাস মহাকাব্য (কিরগিজ: Манас дастаны, ماناس دستانی, তুর্কী: Manas Destanı) কিরগিজদের ঐতিহ্যগত গ্রন্থ যা ১৮ শতকের দিকে রচনা করা হলেও লোকবিদ মতে তা আরো পুরানো। এর পটভূমি দাস্ত-ই কিপচাক ও ঐরাত এর অন্তর্বর্তী পর্বতমালার পার্শ্ববর্তী এলাকা, জাঙ্গেরিয়া অঞ্চল থেকে আগত তুর্ক যাযাবরদের ১৭ শতকে ঘটে যাওয়া ঘটনাপ্রবাহ।

মানাস মহাকাব্য 
মূল শিরোনামМанас дастаны
ভাষাকিরগিজ ভাষা
বিষয়দাস্ত-ই কিপচাক ও ঐরাত এর পার্শ্ববর্তী এলাকা, জাঙ্গেরিয়া অঞ্চল থেকে আগত তুর্ক যাযাবরদের ১৭ শতকে ঘটে যাওয়া ঘটনাপ্রবাহ
ধরনমহাকাব্য
লাইনআনুমানিক ৫,০০,০০০
কিরগিজ মানাসি

কিরগিস্তান সরকার ১৯৯৫ সালে মানাস রচনার ১০০০ বছর পূ্র্তি উৎযাপন করে। এই মহাকাব্যের মহানায়ক এবং তার ঐরাত-শত্রু, জলয় এর বর্ণনা ফার্সি রচনায় ১৭৯২-৯৩ এর দিকে পাওয়া যায়। এই মহাকাব্যটি বিশ্বের সর্ব বৃহৎ, যার মোট লাইনের সংখ্যা ৫,০০,০০০, যদিও বেশ কিছু ঘটনার বর্ণনার পুনরাবৃত্তি দেখা যায়।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Tagirdzhanov, A. T. 1960. "Sobranie istorij". Majmu at-tavarikh, Leningrad.