ভোলানাথ দাস (১৮৫৮-১৯২৯) একজন অসমীয়া কবি। তিনি ১৮৫৮ সালে নগাঁওতে জন্মগ্রহণ করেন। ১৮৭৯ সালে প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বৃত্তি লাভ করেন এবং কলকাতার মেট্রোপলিটন কলেজে পড়তে যান। কিন্তু মায়ের অসুস্থতার জন্য তিনি পড়া বন্ধ রেখে বাড়ি ফিরে আসেন। ১৮৮০ সালে তাঁর নগাঁওয়ের ডিস্ট্রিক্ট সাৰ্ভেয়ার পদে নিযুক্ত হন যদিও স্বাস্থ্য ভেঙে পড়ায় চাকরি ত্যাগ করেন। তারপর তিনি নগাঁওয়ের শিক্ষা বিভাগের কেরানি পদে অস্থায়ীভাবে পরিষেবা দেওয়ার সাথে নগাঁও হাইস্কুল, নগাঁও ও শিবসাগরের সার্ভে স্কুলে কিছুকাল শিক্ষকতা করেন। ১৮৮৮ সালে তিনি সাব্‌ ডেপুটী কালেক্টর পদে নিযুক্ত হন। ১৯১২ সালে তিনি গুয়াহাটীতে সরকারি চাকরি থেকে অবসর গ্রহণ করেন এবং ১৯২৯ সালে তিনি গুয়াহাটীতে মৃত্যুবরণ করেন।[১]

তিনি তিনবার বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। প্ৰথম ও দ্বিতীয়া পত্নীর মৃত্যুর পর ১৮৮৭ সালে তিনি গোলাঘাটের রাজখোয়া বংশের যজ্ঞেশ্বরী আইদেউর সাথে তাঁর বিয়ে হয়। ১৮৯৩ সালে তাঁদের পুত্র লক্ষ্মীনাথ দাসের জন্ম হয়।

প্রকাশিত গ্রন্থসম্পাদনা

  • কবিতা-মালা: প্রথম ভাগ
  • কবিতা-মালা: দ্বিতীয় ভাগ
  • চিন্তা-তরঙ্গিনী: প্রথম ভাগ
  • চিন্তা-তৰঙ্গিনী: দ্বিতীয় ভাগ
  • সীতাহরণ কাব্য

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. বরুয়া, অতুলচন্দ্র (সম্পাদনা) (১৯৭৭)। ভোলনাথ দাস রচনাবলী। অসম প্ৰকাশন পরিষদ। পৃষ্ঠা ৭–৮।