বৌভাত

বাঙলি সংস্কৃতির বিবাহ পরবর্তী রীতি

বৌভাত হচ্ছে বাঙালি হিন্দু সমাজে প্রচলিত বিবাহ সংশ্লিষ্ট অনুসৃত একটি আচার।[১][২] সাধারণত বরের বাড়িতে কনের দ্বিতীয় দিন বৌ-ভাত অনুষ্ঠান পালিত হয়ে থাকে৷ এ দিন কনে অর্থাৎ যে এখন বৌ, সে তার আত্মীয়স্বজনদের আপ্যায়িত করে৷ সাধারণত দুপূরের খাবারের আয়োজন করা হয়ে থাকে৷ সন্ধ্যায় সাধারণত বরের আত্মীয়স্বজন এবং বন্ধুবান্ধবদের আমন্ত্রন ও আপ্যায়ন করা হয়ে থাকে৷ কনের আত্মীয়স্বজনরাও বরের আত্মীয়স্বজনদের অভ্যর্থনা জানিয়ে থাকেন৷ এ উপলক্ষ্যে একটি বড় ধরনের ভোজ অনুষ্ঠান, যাকে ‘প্রীতি ভোজ’ বলা হয়ে থাকে, অনুষ্ঠিত হয়৷ এছাড়াও কনে পক্ষ ও বর পক্ষের মধ্যে উপহার আদান-প্রদান হয়ে থাকে৷

নববধূ

বিবরণসম্পাদনা

বিয়ের পর কনে শ্বশুরবাড়িতে আসার পর বরের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি ভোজের আয়োজন করা হয়। এটি মূলতঃ গড়ে উঠেছে কনে নিজ হাতে বরের বাড়িতে প্রথম রান্না করাকে কেন্দ্র করে। কিন্তু বর্তমানে এটি একটি জাকজমক পূর্ণ আনুষ্ঠানিকতায় রূপ নিয়েছে যেখানে কনে পক্ষ, বরের আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবেরা উপস্থিত হন এবং বর-কনেকে আশীর্বাদ করে নববিবাহিতদের, বিশেষতঃ নববধূকে উপহার দেয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "বাঙালির বিয়ে উৎসব"Jugantor (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৯-০২ 
  2. "12 Things That Happen At A Bengali Wedding"IndiaTimes (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৫-১১-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৯-০২