প্রধান মেনু খুলুন
The Mahabodhi Tree at the Sri Mahabodhi Temple in Bodh Gaya
Sculpture of the Buddha meditating under the Mahabodhi tree
The Vajrashila, where the Buddha sat under the Bodhi Tree in Bodh Gaya

বোধিবৃক্ষ (সংস্কৃত: बोधि), (সিংহলি: Bo), (তামিল: அரசமரம்) (দেবনাগরী: पीपल क पेड़ (পিপল ক পেড়)), হল ভারতের বুদ্ধগয়ায় অবস্থিত একটি অশ্বত্থ বৃক্ষ, যার তলায় ধ্যান করে বৌদ্ধধর্মের প্রবর্তক সিদ্ধার্থ গৌতম বোধিলাভ করে বুদ্ধ হয়েছিলেন। সংস্কৃত ভাষায় 'বোধি' শব্দের অর্থ 'জ্ঞান'। ধর্মীয়মতে, বোধিবৃক্ষ তার হৃদয়াকৃতির পাতা দ্বারা সহজেই চেনা যায়। গৌতম বুদ্ধ পঁয়তিরিশ বছর বয়সে,বৈশাখী পূর্ণিমা তিথিতে পূর্বদিকে মুখ করে সুজাতার দেওয়া পায়েসান্ন ঊনপঞ্চাশ গ্রাসে গ্রহণ করে মধ্যম পন্থা অবলম্বন করার মানস নিয়ে যে অশ্বত্থ বৃক্ষের নীচে ধ্যানমগ্ন হয়েছিলেন তাকেই বলা হয় বোধিদ্রুম বা বোধিবৃক্ষ। বৌদ্ধদের নিকট এই জাতীয় বৃক্ষই পরম ভক্তিতে বোধিবৃক্ষ হিসেবে পূজিত হয়। বোধিবৃক্ষের পাদদেশে জলসিঞ্চন বৌদ্ধদের নিকট একটি অতি পুণ্যের কাজ। বোধিবৃক্ষের প্রতি সম্মান জানিয়ে বোধিবৃক্ষ বন্দনা করা হয়। প্রতিটি বৌদ্ধবিহারে বোধিবৃক্ষের উপস্থিতি একটি অপরিহার্য বিষয়। ধ্যানমগ্নকালে বোধিবৃক্ষ বুদ্ধকে ছায়া প্রদান করায় বুদ্ধ বোধিবৃক্ষের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। সম্রাট অশোক তার পুত্র মহেন্দ্র ও তার কন্যা সংঘমিত্রাকে বৌদ্ধ ধর্ম প্রচারকালে সিংহলে বোধিবৃক্ষের চারা দিয়ে পাঠান। এই চারা বুদ্ধগয়ায় যে বোধিবৃক্ষের নীচে বসে বুদ্ধ বোধি লাভ করেন সেই বৃক্ষেরই বংশধর। বোধিবৃক্ষের শাখাতেই পরলোকগত জ্ঞাতিবর্গের উদ্দেশে সাদা বর্ণের কাপড়ের তৈরি সিলিন্ডার আকৃতির বিশেষ বস্তু টাঙানো হয়।