বেথুয়াডহরী

পশ্চিমবঙ্গের নদিয়া জেলার নাকাশীপাড়া সমষ্টি উন্নয়ন ব্লকের একটি গ্রাম

বেথুয়াডহরী বা বেথুয়া, পশ্চিমবঙ্গেনদিয়া জেলার একটি সেন্সাস টাউন। এটি কৃষ্ণনগর সদর মহকুমার অন্তর্গত নাকাশিপাড়া ব্লকের অধীন।[১] এই জায়গাটি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্যর কারণে বিখ্যাত। কথিত আছে এখানে বেথো (বেথুয়া) শাকের জলাভূমি (ডহর) ছিল। তা থেকেই জায়গার নাম বেথুয়াডহরি।[২]

বেথুয়াডহরী
বেথুয়া
সেন্সাস টাউন
দেশভারত
Stateপশ্চিমবঙ্গ
Districtনদীয়া
সময় অঞ্চলIST (ইউটিসি+5:30)

বন্যপ্রানসম্পাদনা

এখানে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণের জন্যে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বনবিভাগের একটি অভয়ারণ্য রয়েছে। এর আআয়তন ৬৭ হেকটর। অজগর বা ময়াল, হরিন, বেজি ছাড়াও, দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের নামে নামাঙ্কিত প্রকৃতিবীক্ষণ কেন্দ্র, পাখিরালয় আছে বেথুয়াডহরি বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্যতে। এটি ঘিরে এই স্থানে একটি পর্যটন কেন্দ্রও গড়ে উঠেছে।[৩]

১৯৫৮-৫৯ সালে এই বনভূমির সৃজনকাজ শুরু হয়। ১৯৮০ সালে সরকারিভাবে বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্য হিসেবে ঘোষিত হয়। এখানে শাল, সেগুন, মেহগনি হিজল, অর্জুনের, গাব, টুন, নাগকেশর, পিয়াশাল, হামজাম ইত্যাদি গাছ রয়েছে।[২]

যোগাযোগসম্পাদনা

রেল ও সড়কপথে বেথুয়াডহরী কলকাতা ও রাজ্যের অন্যান্য জায়গার সাথে সংযুক্ত। ৩৪ নং জাতীয় সড়ক (ভারত) বেথুয়াডহরীর ওপর দিয়ে গেছে। শিয়ালদহ - লালগোলা লাইনে বেথুয়াডহরী একটি গুরুত্বপূর্ণ রেলওয়ে স্টেশন। লালগোলা প্যাসেঞ্জারস ও কয়েকটি এক্সপ্রেস ট্রেন এই স্টেশনের উপর দিয়ে চলাচল করে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "bethuadahari"villageinfo.in। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুন ২০১৭ 
  2. "বেথুয়াডহরি"। বিকাশপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুন ২০১৭ 
  3. কল্যাণ চক্রবর্তী, বিশ্বজিত রায়চৌধুরী (ফেব্রুয়ারি, ১৯৯১)। ভারতের বন ও বন্যপ্রাণী। কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুস্তক পর্ষদ। পৃষ্ঠা ১৩২,১৩৩।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)