"সেকেন্ড" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(বানান সংশোধন)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
সেকেন্ডের গুণকগুলি সাধারণত ঘণ্টা এবং মিনিটে গণনা করা হয়। সেকেন্ডের ভগ্নাংশকে সাধারণত এক দশমাংশ বা এক শতাংশ গণনা করা হয়। বৈজ্ঞানিক কাজে, এক সেকেন্ডের ছোট ছোট ভগ্নাংশকে মিলিসেকেন্ড (হাজারতম), মাইক্রোসেকেন্ড (মিলিয়নতম), বা ন্যানোসেকেন্ডে (বিলিয়নতম) গণনা করা হয়, এবং কখনও কখনও এর থেকেও ছোট এককে মাপা হয়। এক সেকেন্ডের খুব ছোট ভগ্নাংশের উদাহরণ হল ১-গিগা হার্জ মাইক্রোপ্রসেসর, যার সময়কাল ১ ন্যানোসেকেন্ড। ক্যামেরার [[শাটার গতি]] প্রায়শই এক সেকেন্ডের ভগ্নাংশে প্রকাশিত হয়, যেমন {{frac|১|৩০}} সেকেন্ড বা {{frac|১|১০০০}} সেকেন্ড।
 
জ্যোতির্বিদ্যা সংক্রান্ত পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে ক্যালেন্ডার থেকে দিনের [[ষষ্ঠিক পদ্ধতি]]তে বিভাজন খ্রিস্টপূর্ব তৃতীয় সহস্রাব্দ থেকেই চলত, যদিও সেগুলি আজ আমরা যে সেকেন্ড জানি তা ছিলনা। সময়ের ছোট ছোট বিভাগগুলি তখন মাপা যেতনা, সুতরাং এই জাতীয় বিভাগগুলি গাণিতিকভাবে করা হত। প্রথম যে ঘড়ি নির্ভুলভাবে সেকেন্ড গণনা করতে পারত সেটি ছিল ১৭ শতাব্দীতে উদ্ভাবিত দোলক ঘড়ি। ১৯৫০ এর দশকে শুরু করে, [[পারমাণবিক ঘড়ি]] গুলি পৃথিবীর আবর্তনের চেয়ে ভাল ঘড়ি হয়ে ওঠে, এবং তারা আজও সঠিক মান নির্ধারণ করে চলেছে। পল ডিরাক। কোয়ান্টাম মেকানিক্স।
 
==ঘড়ি এবং সৌর সময়==
বেনামী ব্যবহারকারী