"পৌন্ড্রক্ষত্রিয়" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন
(যোগ)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা উচ্চতর মোবাইল সম্পাদনা
(সংশোধন)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা উচ্চতর মোবাইল সম্পাদনা
কলকাতা মেট্রোপলিটন অঞ্চলের পরোক্ষ অর্থনীতিতে এই গোষ্ঠীর একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব রয়েছে।<ref>{{cite book|url=https://books.google.com/?id=7qXbCgAAQBAJ&pg=PA100&dq=Pod+Caste#v=onepage&q=Pod+Caste&f=false|title=The Politics of Caste in West Bengal|first1=Uday|last1=Chandra|first2=Geir|last2=Heierstad|first3=Kenneth Bo|last3=Nielsen|date=25 September 2015|publisher=Routledge|access-date=7 January 2018|via=Google Books|isbn=9781317414773}}</ref>
 
১৮৭২ সালের ভারতের জনবিবরণীতে প্রথম এই জনগোষ্ঠীকে ‘পোদ’ হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছিল। পৌন্ড্রক্ষত্রিয় জনসমষ্টির আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে ১৯২১ সালের জনবিবরণীতে ‘পোদ’ শব্দের পাশে ব্রাকেটেবন্ধনীতে ‘পৌন্ড্র’ লেখা হলেও ১৯৩১ সালে এর ব্যতিক্রম ঘটে। ১৯৩৯ সালের ১৪ ডিসেম্বর বঙ্গীয় ব্যবস্থাপক সভায় ৭৬ নং তারকা চিহ্নিত স্থানে পতিরাম রায় এমএলএ এই জাতির ‘পৌন্ড্রক্ষত্রিয়’ নাম দাবি করায় তা গ্রহণযোগ্য হয়। এর আগে ১৯৩৮ সালের ৬ মে তৎকালীন ভারতের বঙ্গীয় সরকারের সচিব একটি পত্রে পতিরাম রায়কেরায় এমএলএকে অবহিত করেন যে, সামাজিকভাবে এই জনগোষ্ঠীকে ‘পৌন্ড্রক্ষত্রিয়’ নামে অভিহিত করা হবে। কোনোএরপর কোনো১৯৩৯ পন্ডিতসালের মনে১৪ করেনডিসেম্বর যে,বঙ্গীয় পোদ,ব্যবস্থাপক মাহিষ্যসভায় এবং৭৬ আরওনং অনেকতারকা বর্ণচিহ্নিত মিলেস্থানে নমঃশুদ্রপতিরাম জাতিররায় উদ্ভবএই হয়েছে।জাতির নমঃশুদ্র,‘পৌন্ড্রক্ষত্রিয়’ পোদ,নাম পৌন্ড্রক্ষত্রিয়দাবি করায় মাহিষ্যদেরতা মধ্যেগ্রহণযোগ্য নৈকট্য দেখে মনে হয় যে, এরা সবাই একই বৈশিষ্ট্যের মানুষ। নৃতাত্ত্বিক বিচারে, এরা কেউ বিস্তৃত-শির নয়, সবাই নাতিদীর্ঘ বা মাঝারিহয়। আকারের।
 
কোনো কোনো পন্ডিত মনে করেন যে, পোদ, মাহিষ্য এবং আরও অনেক বর্ণ মিলে নমঃশুদ্র জাতির উদ্ভব হয়েছে। নমঃশুদ্র, পোদ, পৌন্ড্রক্ষত্রিয় ও মাহিষ্যদের মধ্যে নৈকট্য দেখে মনে হয় যে, এরা সবাই একই বৈশিষ্ট্যের মানুষ। নৃতাত্ত্বিক বিচারে, এরা কেউ বিস্তৃত-শির নয়, সবাই নাতিদীর্ঘ বা মাঝারি আকারের।
পৌন্ড্রক্ষত্রিয় জনগোষ্ঠী ব্রাহ্মণত্ব দাবি, উপবীত ধারণ, দ্বাদশাহাশৌচ ইত্যাদি সামাজিক আন্দোলন করে আসছে।<ref name=prajna>{{cite book |last=Roy |first=Suranjan |year=2012 |chapter=Paundra-Kshatria |chapter-url=http://bn.banglapedia.org/index.php?title=%E0%A6%AA%E0%A7%8C%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A1%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B7%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A6%BC |title=Paundra-Kshatria |editor1-last=Islam |editor1-first=Sirajul |editor1-link=Sirajul Islam |editor2-last=Jamal |editor2-first=Ahmed A. |title=Banglapedia: National Encyclopedia of Bangladesh |edition=Second |publisher=[[Asiatic Society of Bangladesh]]}}</ref>
 
পৌন্ড্রক্ষত্রিয় জনগোষ্ঠী তাঁদের ব্রাহ্মণত্ব দাবি, উপবীত ধারণ, দ্বাদশাহাশৌচ ইত্যাদি সামাজিক আন্দোলন করে আসছে।<ref name=prajna>{{cite book |last=Roy |first=Suranjan |year=2012 |chapter=Paundra-Kshatria |chapter-url=http://bn.banglapedia.org/index.php?title=%E0%A6%AA%E0%A7%8C%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A1%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%95%E0%A7%8D%E0%A6%B7%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A6%BC |title=Paundra-Kshatria |editor1-last=Islam |editor1-first=Sirajul |editor1-link=Sirajul Islam |editor2-last=Jamal |editor2-first=Ahmed A. |title=Banglapedia: National Encyclopedia of Bangladesh |edition=Second |publisher=[[Asiatic Society of Bangladesh]]}}</ref>
 
==তথ্যসূত্র==
৪,২১৪টি

সম্পাদনা