"মৈতৈ মণিপুরী ভাষা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(মেইতেই ভাষা-কে মৈতৈ ভাষা-তে পুনর্নির্দেশনার সাহায্যে সরানো হয়েছে)
{{তথ্যছক-ভাষা
|name=মেইতেইমৈতৈ
|nativename=
|region=উত্তর-পূর্ব [[ভারত]], [[বাংলাদেশ]], [[মায়ানমার]]
|fam2=[[তিব্বতী-বর্মী ভাষাসমূহ|তিব্বতী-বর্মী]]
|script=[[পূর্ব নাগরী লিপি|পূর্ব নাগরী]], [[মেইতেই মায়েক]]<ref>[http://books.google.com/books?vid=0LyhX7XB1B-lhWXJTo1wRP&id=0L3M1OmJhesC&pg=PA1&lpg=PA1&dq=manipuri&as_brr=1#PPA15,M1 A Manipuri Grammar, Vocabulary, and Phrase Book] - 1888 Assam Secretariat Press</ref>
|nation={{IND}} ([[মনিপুরমণিপুর]])
|iso2=mni
|iso3=mni
}}
'''মেইতেইমৈতৈ ভাষা''' (মেইতেইমৈতৈ ভাষায়: মেইতেই লোন্‌, মেইতেই লোল্, পাংগাল-লোল; মণিপুরী ভাষা নামেও পরিচিত) উত্তর-পূর্ব ভারতের মণিপুর রাজ্যের প্রধানতম ভাষা। এটি রাজ্যটির সরকারী সমস্ত কর্মকাণ্ডে ব্যবহৃত হয়। মণিপুর ছাড়াও অসম, ত্রিপুরা, বাংলাদেশ ও মায়ানমারে ভাষাটি প্রচলিত।
 
মণিপুরের অধিবাসীরা নিজেদের মধ্যে ভাব আদান প্রদানের জন্য মেইতেইমৈতৈ ভাষা ব্যবহার করে। ভাষাটি তাদের ঐক্যের পরিচায়ক। মণিপুরের বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক স্তর পর্যন্ত ভাষাটি শিক্ষার মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত। এটি ভারতের একটি আঞ্চলিক পর্যায়ের সরকারী ভাষা হিসেবে স্বীকৃত। ভারতের সংবিধানে ভাষাটিকে "মণিপুরী ভাষা" হিসেবে গণ্য করা হয়েছে।
 
যদিও মেইতেইমৈতৈ ভাষাকে মণিপুরী ভাষা হিসেবে ডাকা হয়, এটি মণিপুরে প্রচলিত আরেকটি ভাষা [[বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী ভাষা]] অপেক্ষা স্বতন্ত্র।
 
==তথ্যসূত্র==
৪১,৪৬৯টি

সম্পাদনা