"চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

লিংক সংযোজন
(→‎তথ্যসূত্র: references > সূত্র তালিকা)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
(লিংক সংযোজন)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
'''চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত'''  ১৭৯৩ সালে কর্নওয়ালিস প্রশাসন কর্তৃক [[ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি]] সরকার ও বাংলার ভূমি মালিকদের (সকল শ্রেণির [[জমিদার]] ও স্বতন্ত্র তালুকদারদের) মধ্যে সম্পাদিত একটি স্থায়ী চুক্তি। এর প্রবক্তা [[চার্লস কর্নওয়ালিস|লর্ড কর্নওয়ালিস।কর্নওয়ালিস]]।<ref name="auto">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://academic.eb.com/levels/collegiate/article/Cornwallis-Code/26365|শিরোনাম=Cornwallis Code|শেষাংশ=|প্রথমাংশ=|তারিখ=4 February 2009|ওয়েবসাইট=Encyclopedia Britannica|সংগ্রহের-তারিখ=24 February 2017}}</ref> এ চুক্তির আওতায় জমিদার ঔপনিবেশিক রাষ্ট্রব্যবস্থায় ভূ-সম্পত্তির নিরঙ্কুশ স্বত্বাধিকারী হন। জমির স্বত্বাধিকারী হওয়া ছাড়াও জমিদারগণ স্বত্বাধিকারের সুবিধার সাথে চিরস্থায়ীভাবে অপরিবর্তনীয় এক নির্ধারিত হারের রাজস্বে জমিদারিস্বত্ব লাভ করেন। চুক্তির আওতায় জমিদারদের কাছে সরকারের রাজস্ব-দাবি বৃদ্ধির পথ রুদ্ধ হয়ে গেলেও জমিদারদের তরফ থেকে প্রজাদের ওপর রাজস্বের দাবি বৃদ্ধির ক্ষেত্রে কোনো বিধিনিষেধ আরোপিত হয় নি। জমিদারদের [[জমি বিক্রয়]], বন্ধক, দান ইত্যাদি উপায়ে অবাধে হস্তান্তরের অধিকার থাকলেও তাদের প্রজা বা রায়তদের সে অধিকার দেওয়া হয় নি। নিয়মিত খাজনা পরিশোধ সাপেক্ষে উত্তরাধিকারক্রমে জমির মালিক থাকার প্রথাগত অধিকার রায়তদের থাকলেও জমি হস্তান্তরের অধিকার তাদের ছিল না। সরকারের বেলায় জমিদারদের অবশ্য একটি দায়দায়িত্ব কঠোরভাবে পালনীয় ছিল। সেটি হচ্ছে নিয়মিত সরকারের রাজস্ব দাবি পরিশোধ করা। জমিদারগণকে এ মর্মে হুঁশিয়ার করে দেওয়া হয় যে, তাদের কেউ নির্ধারিত তারিখে কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হলে খেলাপি ব্যক্তির সকল জমি বা বকেয়া দাবি পূরণের উপযোগী জমি নিলামে বিক্রয় করা হবে।
 
== তথ্যসূত্র ==
৭,৯৬৫টি

সম্পাদনা