"বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
== ইতিহাস ==
=== প্রাথমিক পর্যায়ে ===
বুয়েট উনবিংশ শতাব্দীর শেষভাগে জরিপকারদের জন্য একটি [[জরিপ]] শিক্ষালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮৭৬ সালে তদানীন্তন [[ব্রিটিশ রাজ]] ''ঢাকা সার্ভে স্কুল'' নামে একটি প্রতিষ্ঠান চালু করে। এর উদ্দেশ্য ছিল সেই সময়কার ব্রিটিশ ভারতের সরকারি কাজে অংশগ্রহণকারী কর্মচারীদের [[কারিগরি শিক্ষা]] প্রদান করা। ১৯০৫ সালে ঢাকার তৎকালীন [[খাজা আহসানউল্লাহ]] এ বিদ্যালয়ের প্রতি আগ্রহী হন এবং মুসলমানদের শিক্ষাদীক্ষায় অগ্রগতির জন্য বিদ্যালয়ে ১.১২ লক্ষ টাকা দান করেন। তার মহৎ অনুদানে এটি পরবর্তীতে একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষালয় হিসেবে প্রসার লাভ করে এবং তার স্বীকৃতি হিসেবে ১৯০৮ সালে বিদ্যায়নটির নামকরণ করা হয় ''আহসানউল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুল''। ''আহসানউল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুল'' তিন বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্স দিতে শুরু করে [[পুরকৌশল]], [[তড়িৎকৌশল]] এবং [[যন্ত্রকৌশল]] বিভাগে। শুরুতে একটি ভাড়া করা ভবনে বিদ্যালয়টির কার্যক্রম চলত। ১৯০৬ সালে সরকারি উদ্যোগে [[ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়|ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের]] শহীদুল্লাহ হলের কাছে এর নিজস্ব ভবন নির্মিত হয়। এ স্থানের একটি উঁঁচু চিমনি কিছুদিন আগেও এই স্মৃতি বহন করত। ১৯২০ সালে এটি বর্তমান অবস্থানে স্থানান্তরিত হয়।
[[চিত্র:BUET monument 1.JPG|right|thumb|250px|ভাষা শহিদদের স্মরণে বুয়েটের শহিদ মিনার]]
বুয়েট উনবিংশ শতাব্দীর শেষভাগে জরিপকারদের জন্য একটি [[জরিপ]] শিক্ষালয় হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮৭৬ সালে তদানীন্তন [[ব্রিটিশ রাজ]] ''ঢাকা সার্ভে স্কুল'' নামে একটি প্রতিষ্ঠান চালু করে। এর উদ্দেশ্য ছিল সেই সময়কার ব্রিটিশ ভারতের সরকারি কাজে অংশগ্রহণকারী কর্মচারীদের [[কারিগরি শিক্ষা]] প্রদান করা। ১৯০৫ সালে ঢাকার তৎকালীন [[খাজা আহসানউল্লাহ]] এ বিদ্যালয়ের প্রতি আগ্রহী হন এবং মুসলমানদের শিক্ষাদীক্ষায় অগ্রগতির জন্য বিদ্যালয়ে ১.১২ লক্ষ টাকা দান করেন। তার মহৎ অনুদানে এটি পরবর্তীতে একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষালয় হিসেবে প্রসার লাভ করে এবং তার স্বীকৃতি হিসেবে ১৯০৮ সালে বিদ্যায়নটির নামকরণ করা হয় ''আহসানউল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুল''। ''আহসানউল্লাহ ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুল'' তিন বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা কোর্স দিতে শুরু করে [[পুরকৌশল]], [[তড়িৎকৌশল]] এবং [[যন্ত্রকৌশল]] বিভাগে। শুরুতে একটি ভাড়া করা ভবনে বিদ্যালয়টির কার্যক্রম চলত। ১৯০৬ সালে সরকারি উদ্যোগে [[ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়|ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের]] শহীদুল্লাহ হলের কাছে এর নিজস্ব ভবন নির্মিত হয়। এ স্থানের একটি উঁঁচু চিমনি কিছুদিন আগেও এই স্মৃতি বহন করত। ১৯২০ সালে এটি বর্তমান অবস্থানে স্থানান্তরিত হয়।
 
শুরুতে বিদ্যালয়টি [[ঢাকা কলেজ|ঢাকা কলেজের]] সাথে সংযুক্ত ছিল। পরবর্তীতে এটি জনশিক্ষা পরিচালকের অধীনে পরিচালিত হতে থাকে। মিঃ এন্ডারসন এর প্রথম অধ্যক্ষ নিযুক্ত হন। এরপর ১৯৩২ সালে শ্রী বি. সি. গুপ্ত ও ১৯৩৮ সালে জনাব হাকিম আলী অধ্যক্ষ নিযুক্ত হন।<ref name=":0">{{বই উদ্ধৃতি|শিরোনাম=ঢাকা সমগ্র ২|শেষাংশ=মামুন|প্রথমাংশ=মুনতাসীর|প্রকাশক=নেপালচন্দ্র ঘোষ|বছর= ডিসেম্বর ১৯৯৬|আইএসবিএন=|অবস্থান=সাহিত্যলোক, ৩২/৭ বিডন স্ট্রীট, কলিকাতা, ৭০০০০৬|পাতাসমূহ=সার্ভে স্কুল থেকে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, পৃষ্ঠা- ২১৮ থেকে ২১৪}}</ref><ref>Government of India, Dacca Survey School, <u>''Proceedings,''</u> Home Ed. - 144-146A, May-1904.</ref><ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.scribd.com/document/173397280/%E0%A6%A2%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A6%BE-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A6%97-%E0%A6%B0-%E0%A7%A8-%E0%A6%AE%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A7%81%E0%A6%A8|শিরোনাম=ঢাকা সমগ্র ২ - মুনতাসীর মামুন|ওয়েবসাইট=Scribd|ভাষা=en|সংগ্রহের-তারিখ=2018-11-10}}</ref>
অধ্যাদেশ ১৯৬২ অনুযায়ী [[বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়|বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে]] সকল সাংগঠনিক রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হয়েছে ।
আবরার ফাহাদ নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রকে নৃশংসভাবে পিটিয়ে হত্যার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. সাইফুল ইসলাম ক্যাম্পাসে সব ধরনের ছাত্র রাজনীতি এবং রাজনৈতিক সংগঠন ও তাদের কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন।
বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাদেশ অনুযায়ী, ক্যাম্পাসে শিক্ষক রাজনীতিও নিষিদ্ধ করা হয়েছে।<ref>https://www.bbc.com/bengali/news-50017329</ref>
 
=== বিজ্ঞান সংগঠন ===
 
== স্থাপত্যসমূহ ==
* বুয়েট শহীদ মিনার[[চিত্র:BUET monument 1.JPG|right|thumb|250px|ভাষা শহিদদের স্মরণে বুয়েটের শহিদ মিনার]]
* শহীদ মিনার
* নিহত সাবেকুন্নাহার সনি স্মরণে ভাস্কর্য
* নিহত আরিফ রায়হান দীপ স্মরণে স্মৃতিফলক
৩৭টি

সম্পাদনা