"পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
|map_caption =
}}
 
'''পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদ''' [[বাংলাদেশ|বাংলাদেশের]] উত্তর-কেন্দ্রীয় অঞ্চলের [[গাইবান্ধা জেলা|গাইবান্ধা]], [[জামালপুর জেলা|জামালপুর]], [[শেরপুর জেলা|শেরপুর]], [[ময়মনসিংহ জেলা|ময়মনসিংহ]], [[কিশোরগঞ্জ জেলা|কিশোরগঞ্জ]] ও [[নরসিংদী জেলা|নরসিংদী জেলার]] একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য ২৮৩ কিলোমিটার, গড় প্রস্থ ২০০ মিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড বা "পাউবো" কর্তৃক পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদীর প্রদত্ত পরিচিতি নম্বর উত্তর-কেন্দ্রীয় অঞ্চলের নদী নং ৩৭।<ref name="নদনদী">{{বই উদ্ধৃতি |শেষাংশ=মোহাম্মদ রাজ্জাক |প্রথমাংশ১=মানিক |শিরোনাম=বাংলাদেশের নদনদী: বর্তমান গতিপ্রকৃতি |অধ্যায়=উত্তর-কেন্দ্রীয় অঞ্চলের নদী |সংস্করণ=প্রথম |অবস্থান=ঢাকা |প্রকাশক=কথাপ্রকাশ |তারিখ=ফেব্রুয়ারি ২০১৫ |পাতা=২৬১-২৬২ |আইএসবিএন=984-70120-0436-4 |সংগ্রহের-তারিখ=2016-12-17 }}</ref><ref name="নদীকোষ">ড. অশোক বিশ্বাস, ''বাংলাদেশের নদীকোষ'', গতিধারা, ঢাকা, ফেব্রুয়ারি ২০১১, পৃষ্ঠা ৩৯৯, {{আইএসবিএন|978-984-8945-17-9}}।</ref>
 
==প্রবাহ==
পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদীটিনদটি জামালপুর জেলার [[দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা|দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার]] [[ব্রহ্মপুত্র নদী]] থেকে শাখা হিসেবে বের হয়ে কিশোরগঞ্জ জেলার [[ভৈরব উপজেলা|ভৈরব উপজেলায়]] [[মেঘনা নদী|মেঘনা নদীতে]] পতিত হয়েছে।<ref name="নদীকোষ"/>
 
== আরও দেখুন ==
২৮৬টি

সম্পাদনা