"রফিকুন নবী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

হালনাগাদ
(বিষয়শ্রেণী সংশোধন)
(হালনাগাদ)
}}
 
'''রফিকুন নবী''' (উপনাম '''রনবী''') (জন্ম: [[নভেম্বর ২৮|২৮ নভেম্বর]], [[১৯৪৩]] ) [[বাংলাদেশ|বাংলাদেশের]] খ্যাতনামা চিত্রকর, কার্টুনিস্ট। [[টোকাই (কার্টুন চরিত্র)|টোকাই]] নামক কার্টুন চরিত্রটি তার অনবদ্য সৃষ্টি। [[১৯৭৮]] খ্রিস্টাব্দ থেকে টোকাই [[কার্টুন স্ট্রিপ]] হিসেবে [[সাপ্তাহিক বিচিত্রা]] পত্রিকায় প্রকাশিত হয়ে আসছে। শিল্পকলায় তার অনন্য অবদানের জন্য তিনি ১৯৯৩ সালে [[বাংলাদেশ সরকার]] কর্তৃক প্রদত্ত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান [[একুশে পদক|একুশে পদকে]] ভূষিত হন।
 
== জন্ম ও পারিবারিক জীবন ==
 
== পু্রস্কার ==
রফিকুন নবী পেয়েছেনশিল্পকলায় অবদানের জন্য ১৯৯৩ সালে [[একুশে পদক]] ,লাভ করেন। এছাড়া তিনি চারুকলায় জাতীয় সম্মাননা শিল্পকলা একাডেমি পুরস্কার, অগ্রণী ব্যাংক সাহিত্য পুরস্কার, বুক-কভার ডিজাইনের জন্য ১৩ বার ন্যাশনাল একাডেমি পুরস্কার৷২০০৮পুরস্কার লাভ করেছেন৷ ২০০৮ সালে তাঁর আঁকা খরা শীর্ষক ছবির জন্য ৮০টি দেশের ৩০০ জন চিত্রশিল্পীর মধ্যে 'এক্সিলেন্ট আর্টিস্টস অব দ্য ওয়ার্ল্ড' হিসেবে মনোনীত হন৷<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|url=http://www.gunijan.org.bd/GjProfDetails_action.php?GjProfId=139|title=:: Welcome to GUNIJAN :: The Eminent :: Largest electronic journal of bangladeshi eminents :.|work=gunijan.org.bd}}</ref> তিনি ২০১৫ সালের জন্য শেলটেক কর্তৃক প্রদত্ত "শেলটেক পদক" লাভ করেন।<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|title=সিরাজুল ইসলাম, রফিকুন নবী ও আইনুন নিশাত পেলেন শেলটেক পদক|url=http://www.ittefaq.com.bd/print-edition/city/2017/11/05/234184.html|accessdate=৯ ডিসেম্বর ২০১৭|work=[[দৈনিক ইত্তেফাক]]|date=৫ নভেম্বর, ২০১৭}}</ref><ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|title=শেলটেক পদকে ভূষিত তিন গুণী|url=http://www.kalerkantho.com/home/printnews/561767/2017-11-05|accessdate=৯ ডিসেম্বর ২০১৭|work=[[দৈনিক কালের কণ্ঠ]]|date=৫ নভেম্বর, ২০১৭}}</ref>
 
== আরো দেখুন ==
 
== তথ্যসূত্র ==
{{সূত্র তালিকা}}
<references/>
 
== বহি:সংযোগ ==
[[বিষয়শ্রেণী:বাংলাদেশী কার্টুনিস্ট]]
[[বিষয়শ্রেণী:জীবিত ব্যক্তি]]
[[বিষয়শ্রেণী:শিল্পকলায় একুশে পদক বিজয়ী]]
[[বিষয়শ্রেণী:১৯৪৩-এ জন্ম]]
[[বিষয়শ্রেণী:ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক]]