লিগাল ফ্রেমওয়ার্ক অর্ডার, ১৯৭০: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

টেমপ্লেটে সংশোধন
(টেমপ্লেটে সংশোধন)
'''লিগাল ফেমওয়ার্ক অর্ডার, ১৯৭০''' (এলএফও) ছিল [[পাকিস্তান|পাকিস্তানের]] রাষ্ট্রপতি [[ইয়াহিয়া খান]] কর্তৃক জারিকৃত একটি ফরমান। এতে ১৯৭০ সালের [[পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচন, ১৯৭০|সাধারণ নির্বাচনের]] নীতিসমূহ উল্লেখ করা হয়েছিল। এই নির্বাচন ছিল পাকিস্তানের ইতিহাসে প্রথম প্রত্যক্ষ নির্বাচন।<ref name="B">{{citeওয়েব webউদ্ধৃতি|title=Emerging Discontent (1966 - 1970)|url=http://countrystudies.us/bangladesh/16.htm|publisher=[[Library of Congress]] Country Studies|accessdate=2009-09-07}}</ref><ref name="A">{{citeবই bookউদ্ধৃতি|title=Pakistan: Eye of the Storm|author=Owen Bennett-Jones|publisher=[[Yale University Press]]|pages=146–180|year=2003|isbn=978-0-300-10147-8}}</ref> এলএফও এর মাধ্যমে “এক ইউনিট” ব্যবস্থা বাতিল করা হয় এবং পশ্চিম পাকিস্তানে চারটি প্রদেশ [[পাঞ্জাব (পাকিস্তান)|পাঞ্জাব]], [[সিন্ধু প্রদেশ|সিন্ধু]], [[বেলুচিস্তান (পাকিস্তান)|বেলুচিস্তান]] ও [[খাইবার পাখতুনখাওয়া|উত্তরপশ্চিম সীমান্ত প্রদেশ]] পুনর্বহাল করা হয়।<ref name="B"/><ref name="A"/>
 
==ভিত্তি==
 
==নিয়ম==
১৯৭০ সালের ৩১ মার্চ জেনারেল [[ইয়াহিয়া খান]] লিগাল ফ্রেমওয়ার্ক অর্ডার ঘোষণা করেন। এতে বলা হয় যে আইনসভায় ৩০০টি আসন থাকবে।<ref name="A"/> ১৯৫৬ সালের সংবিধানে সংখ্যাসাম্যের উল্লেখ ছিল। ফ্রেমওয়ার্কে রাষ্ট্রের দুই অংশের জন্য সংখ্যানুপাতের কথা বলা হয়। এই নিয়মের আওতায় পূর্ব পাকিস্তান ১৬২টি ও পশ্চিম পাকিস্তান ১৩৮টি আসন লাভ করে।<ref name="A"/> আরো উল্লেখ করা হয় যে জাতীয় পরিষদ অধিবেশন আহ্বানের ১২০ দিনের মধ্যে একটি নতুন সংবিধান প্রণয়ন করবে, কিন্তু প্রক্রিয়ার নিয়ম ভবিষ্যত আইনসভার হাতে অর্পণ করা হয়।<ref name="A"/> ১২০ দিনের মধ্যে নতুন আইনসভা সংবিধান প্রণয়নে ব্যর্থ হলে নতুন নির্বাচন দেয়া হবে। রাজনৈতিক দল কর্তৃক প্রস্তাবিত সকল বক্তব্য ও সম্মতি প্রস্তাব রাষ্ট্রপতির সামনে সত্যায়িত করার জন্য পেশ করা হবে।<ref name="G">{{citeবই bookউদ্ধৃতি|title=War and Secession: Pakistan, India and the Creation of Bangladesh|author=Richard Sisson, Leo E. Rose|publisher=University of California Press|pages=55|year=1991|isbn=978-0-520-07665-5}}</ref> এছাড়াও এক ইউনিট পদ্ধতি বাতিল করা হয়। পূর্বে এক ইউনিটের আওতায় পশ্চিম পাকিস্তানের চারটি প্রদেশকে একত্রে একটি প্রদেশ গণ্য করা হত।<ref name="B"/><ref name="A"/>
 
==ফলাফল==
 
==তথ্যসূত্র==
{{সূত্র তালিকা}}
{{reflist}}
 
[[বিষয়শ্রেণী:পাকিস্তানি আইন]]
৩,৯৩,১৭৯টি

সম্পাদনা