"শতপথ ব্রাহ্মণ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

 
মধ্যণ্ডিন শাখার ১৪টি খণ্ডকে দুটি প্রধান অংশে ভাগ করা যায়। প্রথন নয়টি বই [[যজুর্বেদ]] সংহিতার প্রথম ১৮টি খণ্ডের পুথিগত টীকা দিয়েছে। এই টীকা স্থানে স্থানে পংক্তি ধরে ধরে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী পাঁচটি বই অনুষ্ঠানে ব্যবহৃত নতুনতর দ্রব্য ও অন্যান্য দ্রব্যের বর্ণনা বর্ণনা দিয়েছে। ১৪শ এবং শেষ খণ্ডটি [[বৃহদারণ্যক উপনিষদ্‌]] নামে খ্যাত।
 
[[মধ্যণ্ডিন শাখা|মধ্যণ্ডিন শাখার]] শতপথ ব্রাহ্মণটিকে ১৯শ শতাব্দীর শেষ ভাগে জুলিয়াস এগলিং ইংরেজিতে অনুবাদ করেন। এটি [[সেক্রেড বুকস অফ দি ইস্ট]] গ্রন্থমালায় পাঁচ খণ্ডে প্রকাশিত হয়। [[কান্ব শাখা|কান্ব শাখার]] শতপথ ব্রাহ্মণ উইলিয়াম ক্যালান্ড তিন খণ্ডে ইংরেজিতে অনুবাদ করেছিলেন।
 
==আরও দেখুন==
*[[যাজ্ঞবল্ক্য]]
*[[যজুর্বেদ]]
*[[শতপথী]]