ভেক্টর গ্রাফিক্স: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট কসমেটিক পরিবর্তন করছে; কোনো সমস্যা?
সম্পাদনা সারাংশ নেই
(বট কসমেটিক পরিবর্তন করছে; কোনো সমস্যা?)
[[Imageচিত্র:VectorBitmapExample.png|thumb|220px|ভেক্টর গ্রাফিক্‌স ও র‌্যাস্টার গ্রাফিক্‌সের পার্থক্য। মূল ভেক্টর-ভিত্তিক ছবিটি বামে আছে। উপরে ডানে ছবিটির ৭ গুণ ভেক্টর বিবর্ধিত রূপ এবং নীচে ডানে একই ৭ গুণ বিবর্ধিত বিটম্যাপ রূপ দেখানো হয়েছে। র‌্যাস্টার ছবি যেহেতু পিক্সেলভিত্তিক, তাই এটিকে বড় করলে পরিষ্কার দেখায় না, কিন্তু ভেক্টর-ভিত্তিক ছবিকে বড় করলে কোন ক্ষতি হয় না।]]
'''ভেক্টর গ্রাফিক্‌স''' ({{lang-en|Vector graphics}}) ('''geometric modeling''' বা '''object-oriented graphics''' নামেও পরিচিত) হচ্ছে জ্যামিতিক [[প্রিমিটিভ (জ্যামিতি)|প্রিমিটিভ]] যেমন [[বিন্দু]], [[রেখা]], [[বক্ররেখা]], [[বহুভুজ]], ইত্যাদির গাণিতিক সমীকরণ ব্যবহার করে [[কম্পিউটার গ্রাফিক্স]] এর ছবি উপস্থাপনের পদ্ধতি। এটি র‌্যাস্টার গ্রাফিক্‌সের চেয়ে ভিন্ন, যেখানে ছবিকে পিক্সেলের সমষ্টি হিসেবে উপস্থাপন করা হয়।
 
 
=== সাধারণ ধারণা ===
কম্পিউটারের পর্দায় যে ছবি প্রদর্শিত হয় তা তৈরি হয় [[পিক্সেল]] নামক ছোট ছোট চতুর্ভূজ কোষকে ছকে সাজিয়ে। পিক্সেল শব্দটি আসে Picture element যার অর্থ ছবির উপাদান। এই কোষ গুলোকে সাজিয়েই তৈরি হয় একটি ছবি। কোষগুলো যত ক্ষুদ্র ও বেশিসংখ্যক হয়, ছবির মান বা রেজোল্যুশন তত বেশি ভালো হয়। কিন্তু এত বেশি ছবি-কোষ এর তথ্য ধারণ করতে ফাইলের সাইজের তত বেশি হয়। অবশ্য, আধুনিক উপাত্ত সংরক্ষণের মাধ্যম গুলো গিগাবাইট থেকে টেরাবাইট পর্যন্ত তথ্য ধারণ করতে সক্ষম, ফলে ফাইল সাইজ সীমিত রাখার জন্য ছবির মান নিয়ে আপোষ না করলেও চলে।
 
[[Categoryবিষয়শ্রেণী:কম্পিউটার গ্রাফিক্স]]
২,০০,১০৩টি

সম্পাদনা