প্রধান মেনু খুলুন

বিলি মেরেডিথ

ব্রিটিশ ফুটবলার
বিলি মেরেডিথ.jpg

উইলিয়াম হেনরি "বিলি" মেরেডিথ (ইংরেজি: William Henry "Billy" Meredith উইলিয়াম্‌ হেন্‌রী "বিলী" মেরেডিথ়্‌) (জুলাই ৩০, ১৮৭৪এপ্রিল ১৯, ১৯৫৮) ব্রিটিশ ফুটবলের ইতিহাসে জনপ্রিয়তম ফুটবলারদের মধ্যে অন্যতম। তাকে ফুটবলের প্রথম মহা-তারকা হিসেবে গণ্য করা হয়। ওয়েলসের হয়ে তিনি ৪৮টি আন্তর্জাতিক খেলায় অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে ২২টি খেলার সময় তিনি ম্যানচেস্টার সিটির সদস্য ও বাকী ২৬টি খেলার সময় তিনি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সদস্য ছিলেন। তিনি রাইট উইং-এ খেলতে স্বাচ্ছন্দ বোধ করতেন।

ওয়েলসের ব্ল্যাক পার্ক এলাকায় ১৮৭৪ সালে মেরেডিথের জন্ম হয়। তিনি ব্ল্যাক পার্কে পিট পনি এর চালক হিসেবে কাজ করতে শুরু করেন।

কয়েকবার শির্ক ও নরউইচ ভিক্টোরিয়া দলে খেলার পর বিলি ১৮৯৪ সালের অক্টোবরে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দেন। একই মাসে নিউক্যাসলের বিপক্ষে তার অভিষেক ঘটে, যাতে তার দল ৫-৪ গোলে পরাজিত হয়। তবে পরের সপ্তাহে মেরেডিথ কিংবদন্তি হওয়ার সিড়ির প্রথম ধাপে পদার্পণ করেন যখন ম্যানচেস্টারে তৎকালীন নিউটন হীথের বিপক্ষে তিনি দুটি গোল করেন। নিউওটন হিথ যা পরে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড নামে সুপরিচিত হয়েছে, ম্যানচেস্টার সিটির চির-প্রতিদ্বন্দ্বীর মর্যাদা পায়। তখন ম্যানচেস্টার সিটির সমর্থকদের কাছে তার জনপ্রিয়তা ছিল অনেক বেশি এবং যেকোন জনসমাগমে তার উপস্থিতি সকলের নজর কাড়ত।

সিটিতে মেরেডিথের ক্যারিয়ারে দুটি কলঙ্ক রয়েছে, একটি হচ্ছে ঘুষ নেয়ার অভিযোগ এবং আরেকটি হচ্ছে অতিরক্ত বেতন নেয়ার অভিযোগ যার কারনে ১৯০৪ সালে তাকে ১৮ মাসের নিষেধাজ্ঞা ও সিটির হয়ে না খেলার শাস্তির মুখোমুখি হতে হয়।

১৯০৬ সালের মে মাসে তিনি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড দলে যোগ দেন এবং ১৯০৭ সালের ১ জানুয়ারি এস্টন ভিলার বিপক্ষে তার অভিষেক ঘটে। ইউনাইটেডে তিনি দ্রুত জনপ্রিয় হন। ১৯২১ সালে তিনি আবার সিটি ক্লাবে ফেরত আসেন এবং মুখে দাঁতখিলানি চাবাতে চাবাতে তার পুরানো ধাচের খেলা খেলতে থাকেন। তিনি ৪৭ বছর বয়স পর্যন্ত খেলে গেছেন। ১৯২৪ সালে এই বুড়ো বয়সেও তিনি সিটির হয়ে এফএ কাপে খেলেছেন এবং ব্রাইটনের বিপক্ষের সেই ফাইনালে একটি গোলও করেছেন। ৪৯ বছর ২৪৫ দিন বয়সে তিনি তার শেষ খেলা খেলেন নিউক্যাসলের বিপক্ষে এফ.এ. কাপের সেমি ফাইনালে। তিনিই এফ.এ. কাপ খেলা সবচেয়ে বয়স্ক খেলোয়াড়। তিনি ম্যানচেস্টার সিটির হয়ে ৩৯০ ম্যাচে ১৫০ গোল করেছেন এবং এ দলের হয়ে একবার এফ.এ. কাপ জিতেছেন। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে তিনি ৩৩৫ টি ম্যাচ খেলেছেন যাতে তিনি ৩৬টি গোল করেছেন এবং ২টি লীগ চ্যাম্পিয়নশিপ, ১টি এফ.এ. কাপ ও ২টি এফএ চ্যারিটি শিল্ড জিতেছেন।

১৯২৮ সালে মেরেডিথ স্বল্পায়ু দল ম্যানচেস্টার সেন্ট্রালের ম্যানেজার হয়েছিলেন।

১৯৫৮ সালে ৮৩ বছর বয়সে ম্যানচেস্টারের উইদিংটনে তিনি মৃত্যু বরন করেন।

বহিঃসংযোগসম্পাদনা