বাস টপোলজি (ইংরেজি: Bus Topology), যে টপোলজিতে একটি মূল তারের সাথে সবকটি ওয়ার্কস্টেশন বা কম্পিউটারে সংযুক্ত থাকে তাকে বাস টপোলজি বলা হয়।

বাস টপোলজি

টপোলজির প্রধান ক্যাবলটিকে বলা হয় ব্যাকবোন (Backbone)। সিগন্যাল যখন ব্যাকবোন এ চলাফেরা করে তখন শুধু প্রাপক কম্পিউটার সিগন্যাল গ্রহণ করে, বাকিরা একে অগ্রাহ্য করে।

এ টপোলজি ছোট আকারের নেটওয়ার্কে ব্যবহার খুব সহজ, সাশ্রয়ী ও বিশ্বস্ত। এ সংগঠনে কোনো কম্পিউটার নষ্ট হয়ে গেলে সম্পূর্ণ সিস্টেম নষ্ট হয়ে যায় না। বাস টপোলজিতে একই নেটওয়ার্ক এ ভিন্ন ক্যাবল ব্যবহৃত হতে পারে।

বাস টপোলজি এর সুবিধাসম্পাদনা

  • এ টপোলজি ছোট আকারের নেটওয়ার্ক এ ব্যবহার খুব সহজ ও এটি বিশ্বস্ত
  • এ টপোলজিতে সবচেয়ে কম ক্যাবল প্রয়োজন হয় ফলে খরচে কম।
  • রিপিটার ব্যবহার করে Backbone সম্প্রসারণ করা যায়।
  • এ সংগঠনেয়া কোনো কম্পিউটার নষ্ট হয়ে গেলে সম্পূর্ণ সিস্টেম নষ্ট হয় না।
  • এ সংগঠনেয়া কোনো কম্পিউটার বা যন্ত্র যোগ করলে বা সরিয়ে নিলে পুরো নেটওয়ার্ক এর কার্যক্রম বিঘ্নিত হয় না।

বাস টপোলজি এর অসুবিধাসম্পাদনা

  • এ নেটওয়ার্ক এ কম্পিউটার সংখ্যা বেশি হলে ডেটা ট্রান্সমিশন বিঘ্নিত হয়।
  • ডেটা ট্রান্সমিশন এ গতি কম।
  • নেটওয়ার্ক এ সৃষ্ট সমস্যা নির্ণয় তুলনামূলক বেশি জটিল।
  • মূল ক্যাবলে একটি মাত্র স্থানে ত্রুটি পুরো নেটওয়ার্ক অচল করে দিতে পারে।

আরও দেখুনসম্পাদনা