প্রধান মেনু খুলুন

বাস্কেটবল (ইংরেজি: Basketball) অত্যন্ত জনপ্রিয় খেলা হিসেবে বিশ্বব্যাপী পরিচিত। গোলাকৃতি, কমলা রঙের বল দিয়ে অভ্যন্তরীণ এবং বহিঃস্থ - উভয় প্রকার মাঠেই খেলা হয়ে থাকে। দলগত ক্রীড়া হিসেবে বাস্কেটবলের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে কোর্টে উলম্বভাবে স্থাপিত একটি বাস্কেট বা ঝুড়িতে বল নিক্ষেপের মাধ্যমে পয়েন্ট সংগ্রহ করা। নির্দিষ্ট আইন-কানুন অনুসরণ করে সর্বাধিক পয়েন্ট সংগ্রহকারী দল খেলায় বিজয়ী ঘোষিত হয়। সাধারণতঃ প্রত্যেক দলে ৫ জন খেলোয়াড় থাকে। চতুর্ভূজ আকৃতির বাস্কেটবল কোর্টের উভয় দিকের শেষ প্রান্তে বাস্কেট ঝুলিয়ে রাখা হয় যা রিম নামে পরিচিত।

বাস্কেটবল
Basketball.png
ক্রীড়া পরিচালনা সংস্থাফিবা
প্রথম খেলেছেন১৮৯১, স্প্রিংফিল্ড, ম্যাসাচুসেটস, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
বৈশিষ্ট্যসমূহ
শারীরিক সংস্পর্শস্পর্শযুক্ত
দলের সদস্য১০-২০ (কোর্টে ৫জন)
মিশ্রিত লিঙ্গসিঙ্গেল
বিভাগপ্রধানতঃ অভ্যন্তরীণ অথবা বহিঃস্থ (স্ট্রিটবল)
সরঞ্জামবাস্কেটবল
অলিম্পিক১৯০৪ এবং ১৯২৪ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক্‌সে প্রদর্শন করা হয়
১৯৩৬ সাল থেকে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের নিয়মিত অংশবিশেষ

বাস্কেটবল খেলার প্রধান উপকরণ হিসেবে বলকেও বাস্কেটবল নামে আখ্যায়িত করা হয়। ১৮৯১ সালে মেসাচুসেটসের স্প্রিংফিল্ডের ড. জেমস নাইজস্মিথ নামীয় একজন অধ্যাপকক্রীড়া উদ্ভাবন করেন। জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে বাস্কেটবল বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করছে।[১] গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের অন্যতম ক্রীড়া হিসেবে বিবেচিত। প্রমিলা বাস্কেটবলও সমান জনপ্রিয়; তবে পুরুষদের তুলনায় কম জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

পরিচ্ছেদসমূহ

রেফারীসম্পাদনা

আন্তর্জাতিক বাস্কেটবল এবং কলেজ বাস্কেটবল খেলায় রেফারী প্রধান কর্মকর্তা হিসেবে বিবেচিত হন। তাঁকে যোগ্য সঙ্গ দেন এক বা দুইজন আম্পায়ার। ন্যাশনাল বাস্কেটবল এসোসিয়েশনে প্রধান কর্মকর্তাকে ক্রু চিফ এবং অন্য দু'জন কর্মকর্তাকে রেফারীরূপে বর্ণনা করা হয়েছে। বাস্কেটবল খেলায় সকল কর্মকর্তাকেই প্রধান কর্মকর্তা হিসেবে আখ্যায়িত করলেও সমষ্টিগতভাবে তারা কর্মকর্তা অথবা ভুল ব্যাখ্যায় রেফারী বলে ডাকা হয়।

গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক্‌সসম্পাদনা

১৯৩৬ সালে বাস্কেটবলকে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক্‌সের পুরুষ বিভাগের ক্রীড়ারূপে অন্তর্ভুক্ত করা হয় ও অদ্যাবধি নিয়মিতভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। পদক প্রদানের পূর্বে ১৯০৪ সালে প্রদর্শনী আকারে অলিম্পিকে উপস্থাপন করা হয়। ১৯৭৬ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক্‌সে প্রথমবারের মতো প্রমিলা বাস্কেটবলের অন্তর্ভুক্তি ঘটে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সবচেয়ে সফল দেশ হিসেবে অলিম্পিকের বাস্কেটবলে একচ্ছত্র প্রাধান্য বিস্তার করে আসছে। পুরুষ বিভাগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৭টি প্রতিযোগিতার মধ্যে ১৪ বার স্বর্ণপদক লাভ করে। তন্মধ্যে ১৯৩৬ থেকে ১৯৬৮ সাল পর্যন্ত দলটি একাধারে ৭ বার জয়ী হয়। এছাড়াও, মার্কিনী প্রমিলা দলটি ৯ বারের মধ্যে ৭ বার জয়ী হয়। ১৯৯৬ থেকে ২০১২ পর্যন্ত তারা একনাগাড়ে ৫ বার জয়লাভ করে।

আন্তর্জাতিক বাস্কেটবল সংস্থাসম্পাদনা

ফিবা বা আন্তর্জাতিক বাস্কেটবল সংস্থা ১৯৩২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে আর্জেন্টিনা, চেকোস্লোভাকিয়া, গ্রীস, ইতালি, লাতভিয়া, পর্তুগাল, রোমানিয়া এবং সুইজারল্যান্ড - এই আটটি দেশ সদস্য ছিল। ঐ সময় সংস্থায় কেবলমাত্র সৌখিন খেলোয়াড়দেরকে অন্তর্ভুক্ত করা হতো। এর সমার্থক শব্দগুচ্ছ ফরাসী ভাষা ফেদারেশিও ইন্টারনেশিওনালে ডি বাস্কেটবল এমেচার থেকে উদ্ভূত হয়ে ফিবা পরিচিতি লাভ করে। বর্তমানে ২১৩টি দেশের জাতীয় বাস্কেটবল সংস্থা এর সদস্য। দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে রয়েছে - ইংরেজি, ফরাসী, জার্মান, রুশ এবং স্প্যানিশ ভাষা।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Griffiths, Sian (সেপ্টেম্বর ২০, ২০১০)। "The Canadian who invented basketball"BBC News। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১১ 
  2. 2006 General Statutes of FIBA, Article 37.6