বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি (বিআইএমটি) হল একটি সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট, যেখানে মেরিন এবং শিপ বিল্ডিং প্রযুক্তিতে চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে শিক্ষাদান করা হয়। বিআইএমটিতে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে অধ্যয়নের জন্য চারটি পৃথক কোর্সও রয়েছে। প্রতিষ্ঠিানটি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো দ্বারা পরিচালিত ও নিয়ন্ত্রিত হয়।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি
BIMT Gate.jpg
ধরনসরকারি
স্থাপিত১৯৫৮ (1958)
অধ্যক্ষশরিফা সুলতানা
অবস্থান
নারায়ণগঞ্জ
,
বাংলাদেশ

২৩°৩৬′২৫″ উত্তর ৯০°৩০′৩১″ পূর্ব / ২৩.৬০৭০° উত্তর ৯০.৫০৮৭° পূর্ব / 23.6070; 90.5087স্থানাঙ্ক: ২৩°৩৬′২৫″ উত্তর ৯০°৩০′৩১″ পূর্ব / ২৩.৬০৭০° উত্তর ৯০.৫০৮৭° পূর্ব / 23.6070; 90.5087
ওয়েবসাইটbimt.gov.bd

ইতিহাসসম্পাদনা

১৯৫৮ সালে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। ১৯৬০ সাল থেকে এটি মেরিন ডিজেল ট্রেনিং সেন্টার (এমডিটিসি) নামে পরিচিত ছিল। ১৯৭৯ সালের ১০ ডিসেম্বর এর নাম পরিবর্তন করে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব মেরিন টেকনোলজি করা হয়।

ক্যাম্পাসসম্পাদনা

বিআইএমটি নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর উপজেলায় শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্ব তীরে অবস্থিত। এর ক্যাম্পাসের মোট আয়তন ৯ একর। নারায়ণগঞ্জ শহর থেকে নদীতে নৌকা করে খুব সহজেই ক্যাম্পাসে যাওয়া যায়। ট্রিবিণী খালটি ক্যাম্পাসের দক্ষিণ সীমানা চিহ্নিত করেছে।

শিক্ষা কার্যক্রমসম্পাদনা

বিআইএমটিতে চার বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইন মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ডিপ্লোমা ইন শিপবিল্ডিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে শিক্ষাদান করা হয়। এছাড়াও একই বিষয়ে দুই বছর মেয়াদি ট্রেড কোর্স, শর্ট কোর্স এবং বহিরাগন কোর্স করা হয়। ডিপ্লোমা কোর্সে ভর্তির জন্য মাধ্যমিক বা সমমান পাস হতে হয় এবং ট্রেড কোর্সে ভর্তির জন্য উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমান পাস হতে হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা