ফ্লাউড কমিশন ছিল ব্রিটিশ ভারতের বাংলা প্রদেশের সরকার কর্তৃক ১৯৩৮ খ্রিষ্টাব্দে গঠিত একটি কমিশন। ভূমি রাজস্ব সংক্রান্ত কারণে এই কমিশন গঠিত হয়।[১]

পটভূমিসম্পাদনা

১৯৩৭ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে কৃষক প্রজা পার্টির ইশতেহারে প্রজা স্বত্ব আইন, মহাজনী আইন, কৃষি ঋণ বিষয়ে উল্লেখ ছিল [২]। নির্বাচনের পর এ কে ফজলুল হকের নেতৃত্বে সরকার গঠিত হয়। এই সরকারের আমলে ফ্লাউড কমিশন গঠিত হয়। স্যার ফ্রান্সিস ফ্লাউড ছিলেন এর প্রধান। জমিদারি প্রথা বাতিলসহ ভূমি রাজস্ব সংক্রান্ত বিষয়গুলো এই কমিশনের আওতাধীন ছিল।[১]

ফলাফলসম্পাদনা

১৯৪০ সালের ২ মার্চ কমিশন তার নিজস্ব সুপারিশ পেশ করে।[১] সুপারিশে চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত বাতিলের কথা অন্তর্ভুক্ত ছিল। তবে কমিশনের সুপারিশ দ্রুত বাস্তবায়ন করা যায়নি। ব্রিটিশদের ভারত ত্যাগের পর ১৯৫০ সালে পূর্ববঙ্গ জমিদারি অধিগ্রহণ ও প্রজাস্বত্ব আইন, ১৯৫০ মোতাবেক চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত বিলুপ্ত করা হয় এবং ১৯৫১ সালে তা আনুষ্ঠানিকভাবে কার্যকর হয়।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. http://bn.banglapedia.org/index.php?title=ফ্লাউড_কমিশন
  2. আমার দেখা রাজনীতির পঞ্চাশ বছর, লেখক-আবুল মনসুর আহমদ