ফ্রিডরিখ নিচে

জার্মান দার্শনিক, কবি ও ভাষাতত্ত্ববিদ
(ফ্রিডরিখ নিৎশে থেকে পুনর্নির্দেশিত)

ফ্রিড‌রিখ‌ ভিল‌হেল্ম নিচে[টীকা ১] (জার্মান: Friedrich Wilhelm Nietzsche, ফ্রিড্‌রিখ্‌ ভিল্‌হেল্‌ম্‌ নিচে, আ-ধ্ব-ব: [ˈfʁiːtʁɪç ˈniːtʃə], জন্ম ১৫ই অক্টোবর, ১৮৪৪ - মৃত্যু ২৫শে আগস্ট, ১৯০০) (কখনও কখনও "নিৎশে"-ও লেখা হয়) একজন বিখ্যাত জার্মান দার্শনিক, কবিভাষাতত্ত্ববিদ ছিলেন। নিচে তার পেশাজীবন শুরু করেন একজন ভাষাতাত্ত্বিক হিসেবে। ১৮৬৯ সালে, ২৪ বছর বয়সে তিনি ব্যাসেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাষাতাত্ত্বিক হিসেবে যোগ দেন। কিন্তু ১৮৭৯ সালে স্বাস্হ্যগত কারণে পদত্যাগ করেন যা তাকে জীবনের অধিকাংশ সময় পীড়িত রেখেছিল। ১৮৮৯ সালে, ৪৫ বছর বয়সে তিনি মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েন। তিনি ১৯০০ সালে মৃত্যুবরণ করেন।

ফ্রিডরিখ নিচে
FWNietzscheSiebe.jpg
যুগউনিশ শতকের দর্শন
অঞ্চলপাশ্চাত্য দর্শন
ধারাWeimar Classicism; precursor to মহাদেশীয় দর্শন, অস্তিত্ববাদ, উত্তরাধুনিকতাবাদ, poststructuralism, psychoanalysis
প্রধান আগ্রহ
aesthetics, নীতিবিদ্যা, ontology, philosophy of history, মনোবিজ্ঞান, value-theory
উল্লেখযোগ্য অবদান
Apollonian and Dionysian, death of God, eternal recurrence, herd-instinct, master-slave morality, Übermensch, perspectivism, will to power, ressentiment

নিচে-র বিখ্যাত "ঈশ্বর মৃত এবং আমরাই তাকে হত্যা করেছি।" দর্শন ছিলো ওই আমলের ধর্মীয় অনুশাসনের বিরুদ্ধে একটি বড় প্রতিবাদ। তিনি পশ্চিমা সনাতন ধর্মীয় বিশ্বাস কে চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। সাম্রাজ্যবাদ বিস্তারে ধর্মকে যখন ব্যবহার করা হচ্ছিল, যখন আফ্রিকার "কালো মানুষকে" 'শিক্ষিত' করার 'মহান দায়িত্ব' নিয়ে ধর্ম প্রচারকরা আফ্রিকায় তাদের কর্মকাণ্ডের বিস্তৃতি ঘটিয়েছিলেন, তখন নিৎসের লেখনীতে এর সমালোচনা করা হয়েছিলো। তিনি তথাকথিত গণতন্ত্রকে ঘৃণা করতেন। গণতন্ত্রে যে সমতার কথা বলা হয়, তা তার পছন্দ ছিলো না। তিনি ভবিষ্যতে এক ধরনের অনিশ্চয়তা,বিপ্লব,যুদ্ধ,ও সংঘর্ষের ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন।।

সৃষ্টিকর্মসম্পাদনা

  • The Birth of Tragedy
  • On Truth and Lies in a Nonmoral Sense
  • Human, All Too Human
  • Thus Spoke Zarathustra
  • Beyond Good and Evil


টীকাসম্পাদনা

  1. এই জার্মান ব্যক্তিনামটির বাংলা প্রতিবর্ণীকরণে উইকিপিডিয়া:বাংলা ভাষায় জার্মান শব্দের প্রতিবর্ণীকরণ-এ ব্যাখ্যাকৃত নীতিমালা অনুসরণ করা হয়েছে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা