বৈদেশিক মুদ্রা (ফরেক্স বা এফএক্স হিসাবেও পরিচিত) বিশ্বব্যাপী, ওভার-দ্য-কাউন্টার মার্কেট (ওটিসি) বোঝায় যেখানে ব্যবসায়ীরা, বিনিয়োগকারী, প্রতিষ্ঠান এবং ব্যাংকগুলি, বিশ্ব মুদ্রাগুলি ক্রয়, বিক্রয় এবং বিক্রি বিনিময় করে। ২০১৬ সালে ফরেক্সে দৈনিক লেনদেনের পরিমান ছিল $৫.১ ট্রিলিয়ন, ব্যাংক অফ ইন্টারন্যাশনাল সেটেলমেন্টের (BIS) ডাটা অনুযায়ী। ফরেক্স মার্কেট  হচ্ছে ডিসেন্ট্রালাইজড মার্কেট। অন্য কথায়, এখানে কোন নির্দিষ্ট স্থান নেই যেখানে বিনিয়োগকারীরা কারেন্সি ট্রেড করতে যাবে। ফরেক্স ট্রেডাররা ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিভিন্ন ডিলারের কাছ থেকে ভিন্ন কারেন্সি পেয়ারের কোট পেয়ে থাকে। বিশ্বজুড়ে ফাইনান্স্যিয়াল সেন্টার - লন্ডন, নিউ ইয়র্ক, টোকিও, হংকং এবং সিঙ্গাপুর - এখানে নোঙ্গর হিসেবে কাজ করে বিভিন্ন ধরনের বায়ার এবং সেলারদের মধ্যে লেনদেন সম্পন্ন করতে। ইন্টারব্যাংক কারেন্সি মার্কেটে এক্সেস  পেতে হলে আপনার তা ফরেক্স ব্রোকারের মাধ্যমে পেতে হবে।

ফরেক্স ইতিহাসসম্পাদনা

1971 সালে ব্রেটন উডস এ চুক্তির পর, আরও বড় মুদ্রা একে অপরের বিরুদ্ধে অবাধে ভাসা করার অনুমতি দেওয়া হয়। পৃথক মুদ্রাগুলির মান পরিবর্তিত হয়, যা বৈদেশিক মুদ্রার পরিষেবা এবং ট্রেডিংয়ের প্রয়োজনীয়তা বাড়িয়ে দেয়। বাণিজ্যিক ও বিনিয়োগ ব্যাংকগুলি তাদের ক্লায়েন্টদের পক্ষে ফরেক্স মার্কেটে বেশিরভাগ ট্রেডিং পরিচালনা করে থাকে তবে পেশাদার ও ব্যক্তিগত বিনিয়োগকারীদের জন্য অন্যের বিরুদ্ধে এক মুদ্রার ট্রেডিংয়ের সম্ভাবনাও রয়েছে।

ফরেক্স ট্রেডিং কি?সম্পাদনা

ফরেক্স বিনিয়োগ মানে হচ্ছে ফরেন এক্সচেঞ্জ আর এখানে বিনিয়োগকারী এবং স্পেকুলেটররা কারেন্সি মার্কেটে ট্রেড করে।

বিনিয়োগকারী যেমন স্টক অথবা কমোডিটিতে ট্রেড করতে পারে, একজন ইনভেস্টর কারেন্সিতেও সেভাবে ট্রেড করতে পারে এবং ২টি দেশের কারেন্সির এক্সচেঞ্জ রেটের পার্থক্যের মধ্যে দিয়ে লাভ করতে পারে।

উদাহরণস্বরূপ, ট্রেডার যদি মনে করে যে ইউরোর অবস্থান ইউএস ডলারের তুলনায় শক্তিশালী হবে, তাহলে সে ডলার সেল করে ইউরো বাই করবে।