প্রকৃতি-প্রত্যয়

সাধিত শব্দ বিশ্লেষণান্তে শব্দের যে মৌল প্রতিপাদিত হয় তাকে প্রকৃতি বলা হয়।
(প্রত্যয় থেকে পুনর্নির্দেশিত)

ব্যাকরণ শাস্ত্রে, এক বা একাধিক ধ্বনি দিয়ে তৈরি শব্দকে প্রকৃতি বলে।[১] প্রত্যয় হলো এই প্রকৃতির পর যুক্ত হওয়া কিছু অর্থহীন শব্দাংশ, যা নতুন শব্দ তৈরি করে। মূলত প্রকৃতির সঙ্গে যুক্ত অর্থহীন শব্দাংশই প্রকৃতি-প্রত্যয়। প্রত্যয় ক্রিয়ামূলশব্দের সাথে যুক্ত হয়।

প্রত্যয়ের নিজস্ব কোনো অর্থ নেই। তবে প্রত্যয় যুক্ত হওয়ার পরে অনেক সময়ে শব্দের অর্থ ও শ্রেণিপরিচয় বদলে যায়।

প্রকারভেদসম্পাদনা

প্রত্যয় দুই প্রকার: তদ্ধিত প্রত্যয় ও কৃৎ প্রত্যয়।

  • শব্দের পরে যেসব প্রত্যয় যুক্ত হয়, সেগুলোকে তদ্ধিত প্রত্যয় বলে। তদ্ধিত প্রত্যয় দিয়ে সাধিত শব্দকে বলে তদ্ধিতান্ত শব্দ। উদাহরণ: পঠ+অক=পাঠক, দিন+ইক = দৈনিক। এখানে, 'অক' ও ইক' তদ্ধিত প্রত্যয় এবং 'পঠ' ও 'দৈনিক' হলো তদ্ধিতান্ত শব্দ।
  • ক্রিয়ামূল বা ধাতুর পরে যেসব প্রত্যয় যুক্ত হয়, সেগুলোকে কৃৎ প্রত্যয় বলে। কৃৎ প্রত্যয় দিয়ে সাধিত শব্দকে বলে কৃদান্ত শব্দ। উদাহরণ: দুল্‌+অনা = দোলনা, কৃ+তব্য = কর্তব্য। এখানে, 'অনা' ও 'তব্য' হলো কৃৎ প্রত্যয় এবং 'দোলনা' ও 'কর্তব্য' হলো কৃদন্ত শব্দ।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "নবম-দশম শ্রেণির পড়াশোনা (বাংলা ২য় পত্র)"jjdin.com। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুন ২০১৬