পিনিনা হারজোগ (১৯২৫/১৯২৬ - জানুয়ারি ২১, ২০০৪ [১]) ছিলেন একজন ইসরায়েলি ফার্মাসিস্ট এবং জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তা।

জীবনীসম্পাদনা

তার পিতার নাম জালমান শাখোর এবং মাতার নাম ফ্রিদা শাখোর। ১৯৪০-এর দশকে তার পরিবার ফিলিস্তিনে বাস করত। ১৯৪৬ সালে তিনি স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করার পর ম্যানচেস্টারে ফার্মেসি পড়া শুরু করেন। [২] পরবর্তীতে, তিনি অটোয়া এবং ওয়াশিংটন ডিসির বিশ্ববিদ্যালয়েও শিক্ষাগ্রহণ করেন।[৩] শিক্ষাজীবনে তিনি পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন।

১৯৫২ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসা দিবসে তিনি ইয়াকভ হারজগকে বিয়ে করেন। তার স্বামী ইয়াকভের সঙ্গে তিনি শৈশব থেকেই পরিচিত ছিলেন। তাদের বিবাহের অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ইয়াকভের বাবা ও পিনিনার শ্বশুর রাবাই ইতজাক হালেভি হারজগ। ইয়াকভ হারজগ ১৯৬০ সাল থেকে ১৯৬৩ সাল পর্যন্ত কানাডায় ইসরায়েলের একজন কূটনীতিক এবং রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন। এই দম্পতির তিন সন্তান রয়েছে। তারা হলেন: শিরা (জন্ম ১৯৫৩), এলিয়েজরা (১৯৫৫) ও ইতজাক (১৯৬৭)। তার স্বামী ইয়াকভ হারজগ ১৯৭২ সালে মারা যান। ১৯৮৩ থেকে ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত ইসরাইলের প্রেসিডেন্ট চেম হারজগ ছিলেন পিনা হারজগের তার শ্যালক ও রাজনীতিবিদ আইজাক হারজগের ভাগ্নে।

১৯৬৪ সাল থেকে পিনিনা হারজোগ ইজরায়েলি জন-স্বাস্থ্য শাখায় চাকরি শুরু করেন। প্রথমদিকে তিনি ছিলেন নতুন ওষুধ নিবন্ধনের দায়িত্বে থাকা ফার্মাসিস্ট। উত্তরোত্তর সলতার কারণে তিনি ১৯৭২ থেকে ১৯৮৪ সালের মধ্যে ক্লিনিকাল ফার্মাকোলজি বিভাগের ডেপুটি হেড এবং পরে ভারপ্রাপ্ত প্রধান হন। তিনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরবর্তীকালে তিনি ক্লিনিকাল ট্রায়াল অনুমোদনের জন্য উপদেষ্টা কমিটিতেও ছিলেন। এই এই অবস্থানটি তাকে ১৯৮৩ এবং ১৯৮৪ সালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (হু) উপদেষ্টা দলের সদস্য হিসাবে ও ওষুধের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার উপর আন্তর্জাতিক সহযোগিতা প্রকল্প সম্পর্কে দেখেছিল।[৩] ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৬ পর্যন্ত তিনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (WHO-র) নির্বাহী বোর্ডের সদস্য ছিলেন। ১৯৯৪ সালে তিনি এর ভাইস চেয়ারপারসন হন। তিনি ১৯৯৬ সালে ৪৯ তম WHO সম্মেলনে নির্বাহী বোর্ডের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। [১]

তিনি একজন মহিলা কর্মীও ছিলেন এবং ১৯৮৮ থেকে ১৯৯৪ সালের মধ্যে আন্তর্জাতিক মহিলা কাউন্সিলে (আইসিডব্লিউ) ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হয়ে তার কাজের কারণে বিরতির পর, তিনি ১৯৯৭ থেকে ২০০৩ সালের মধ্যে আইসিডব্লিউর সভাপতি হিসেবে দুই মেয়াদে দায়িত্ব পালন করেন। [৪]

তার পেশাগত শখ ছিল চিত্রকলা এবং পিয়ানো। [৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Entry in obituary of The Globe and Mail, Toronto 2005
  2. Michael Bar-Zohar: Yaacov Herzog. A biography. Halban Publishers 2005. ISBN 978-1870015-93-6. Digitalisat
  3. Elisabeth Sleeman: The International Who's Who of Women 2002. ISBN 1-85743-122-7. Online
  4. Israel Heute, 23. Januar 2005: