আচার্য পিনগালা একজন প্রাচীন ভারতীয় গণিতবিদ ও লেখক। তার লেখার মধ্যে রয়েছে চন্দ্রশাস্ত্র (যাকে কখনো কখনো পিনগালা সুত্রও বলা হয়) যা প্রাচীন সংস্কৃত ভাষার ছন্দের উপর রচিত গ্রন্থ। [১]

পিনগালা
একাডেমিক কর্ম
যুগময়ুর
প্রধান আগ্রহভারতীয় গণিত, সংস্কৃত ব্যকরণ
উল্লেখযোগ্য কাজচন্দ্রশাস্ত্রের লেখক
উল্লেখযোগ্য ধারণাবাইনারি সংখ্যা পদ্ধতি, মাত্রামেরু

বিন্যাস ও সমাবেশসম্পাদনা

চন্দ্রশাস্ত্র এর একটি অধ্যায়ে পাওয়া যায় সবচেয়ে প্রাচীন দুই ভিত্তিক সংখ্যা পদ্ধতির পরিচয়। কখনো কখনো শুন্যের আবিষ্কারক হিসেবে পিনগালার নাম নেওয়া হয়। যদিও বাইনারি সংখ্যার ধারনায় তিনি ০ ও ১ ব্যবহার করেননি। বরং তিনি হালকা (লাঘু -0) ও ভারী (গুরু -1) কে দুইটি আলাদা সংখ্যা বিবেচনা করেন। তিনি বাইনারি সংখ্যার মধ্যে প্যটার্ন লক্ষ্য করেন। সেই প্যটার্ন থেকেই 'দ্বিপদী বিস্তৃতি' কে বের করে আনা সম্ভব। চন্দ্রশাস্ত্র এর ব্যাখ্যা লিখেন হালয়ুধ। তিনি তার ব্যাখ্যায় প্যাসকেলের ত্রিভুজের কথা উল্লেখ করেন। তিনি প্যাসকেলের ত্রিভুজকে মেরুপ্রস্তর হিসেবে নামকরণ করেন। পিনগালার কাজের ভিতর ফিবোনাচ্চি সংখ্যাও রয়েছে, যাদেরকে পিনগালা মাত্রামেরু নামে ডাকতেন। [২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Apte, Vaman Shivaram (১৯৭০)। Sanskrit Prosody and Important Literary and Geographical Names in the Ancient History of India। Motilal Banarsidass। পৃষ্ঠা 648–649। আইএসবিএন 978-81-208-0045-8 
  2. Goonatilake, Susantha (১৯৯৮)। Toward a Global Science। Indiana University Press। পৃষ্ঠা 126আইএসবিএন 978-0-253-33388-9