পিটবুল (র‍্যাপার)

রনি খান

আর্মান্দো ক্রিশ্চিয়ান পেরেজ (জন্ম জানুয়ারি ১৫, ১৯৮১), পিটবুল অথবা মি. ওয়ার্ল্ডওয়াইড মঞ্চ নামে অধিক পরিচিত, একজন মার্কিন র‍্যাপার। তার মূলধারার প্রথম রেকর্ডিং ছিল ২০০২-এ লিল জনের অ্যালবাম কিংস অব ক্রাংকের একটি একক সংগীত। ২০০৪-এ, পিটবুল টিভিটি রেকর্ডসের অধীনে তার প্রথম অ্যালবাম মিয়ামি প্রকাশ করেন। এটির যৌথ প্রযোজক ছিল লিল জনজিম জনসিন। পিটবুল এরপর প্রকাশ করেন তার দ্বিতীয় অ্যালবাম অ্যাল ম্যারিয়েল ২০০৬-এ ও তৃতীয় অ্যালবাম দ্য বোটফিল্ট ২০০৭-এ।[৪] তার চতুর্থ অ্যালবাম হচ্ছে ২০০৯-এ রেব্যুলেশন, যেটিতে রয়েছে তার বিখ্যাত একক সঙ্গীত "আই নো ইউ ওয়ান্ট মি (ক্যালি ওচো)", যেটি যুক্তরাষ্ট্রের বিলবোর্ড হট ১০০ এর তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল।

পিটবুল
Pitbull the rapper in Sydney, Australia (2012).jpg
প্রাথমিক তথ্য
জন্ম নামআর্মান্দো ক্রিশ্চিয়ান পেরেজ[১]
জন্ম (1981-01-15) জানুয়ারি ১৫, ১৯৮১ (বয়স ৩৯)
মায়ামি, ফ্লোরিডা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ধরন
পেশা
  • র‍্যাপার
  • সঙ্গীত প্রযোজক
বাদ্যযন্ত্রসমূহকন্ঠ
কার্যকাল২০০১-বর্তমান
লেবেল
সহযোগী শিল্পী
ওয়েবসাইটwww.pitbullmusic.com

পিটবুলের ২০১১-এর অ্যালবাম হচ্ছে প্লানেট ফিট, এতে রয়েছে বিখ্যাত একক "গিভ মি এ্যাভরিথিং", যেটি যুক্তরাষ্ট্রের তালিকায় ১নম্বর অবস্থানে থাকা তার প্রথম একক সংগীত। তার ২০১৩-এর অ্যালবাম মেল্টডাউন ইপির "টিম্বার" গানটি ২০টি দেশের তালিকার সেরা অবস্থানে ছিল, এমনকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইংল্যান্ডেও। তিনি ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপের সংকলন অ্যালবাম সনি মিউজিক এন্টারটেইনমেন্ট কর্তৃক মুক্তিপ্রাপ্ত ওয়ান লাভ, ওয়ান রিদমের প্রথম গান উই আর ওয়ান (ওলে ওলে) পরিবেশন করেন ক্লাউদিয়া লেইতে ও জেনিফার লোপেজের সঙ্গে। এই গানটি পিটবুল, জেনিফার লোপেজ, ক্লাউদিয়া লেইতে , থমাস টোরেলসেন, ড্যানিয়েল ম্র্সীযা, সিয়া ফুর্লের, লুকাস সেবাস্টিয়ান গত্তভাল্ড, হেনরি ওয়াল্টার, নাদির খায়েতের মধ্যকার সহযোগিতায় তৈরি। এটি এপ্রিল ৮, ২০১৪ সালে মুক্তি পায় এবং টুর্নামেন্টের অফিসিয়াল থিম সঙ্গীত হিসেবে পরিবেশিত হয়।[৫]

প্রারম্ভের জীবন ও শিক্ষাসম্পাদনা

পিটবুল জানুয়ারি ১৫, ১৯৮১-এ কিউবান বংশোদ্ভূত পরিবারে মিয়ামি, ফ্লোরিডায় জন্মগ্রহণ করেন।[৬][৭] যখন ততার বয়স ৩, তখন তিনি কিউবার জাতীয় বীর ও কবি জোস মার্তির কাজগুলো স্পেনীয় ভাষায় আবৃত্তি করতে পারতেন।[১] বেড়ে উঠতে, তিনি মিয়ামি গম্ভীর ধরনের পপ সঙ্গীত দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিলেন[৪]শ্যালিয়া ক্রুজ এবং উইলি শিরিনোকে সঙ্গীতের অনুপ্রেরণার উৎস হিসেবে পেয়েছেন বলে তিনি উল্লেখ করেছেন।[৮] পিটবুলের পিতা-মাতা পৃথক হয়ে যায় যখন কিনা তিনি যুবক ছিলেন এবং তার মায়ের সাথে বেড়ে ওঠেছিলেন; তিনি এরপর রোজওয়েল,জর্জিয়া তে একটি পরিবারের সাথে সময় অতিবাহিত করেন।[৯] তিনি মিয়ামি কোরাল পার্ক হাই স্কুল থেকে গ্রাজুয়েটের পূর্বে সাউথ মিয়ামি সিনিয়র হাই স্কুল এ অধ্যায়ন করেন, যেখানে তিনি র্যাপার হিসেবে কর্মজীবন শুরু করার প্রতিই দৃষ্টি দেন।

তিনি বলেছেন মঞ্চ নাম পিটবুল রাখতেই তিনি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেছিলেন। মিয়ামিতে লিল জনের সঙ্গে সাক্ষাতের পরে,[৯] পিটবুল ২০০২-এ আর্বিভূত হয়েছিলেন লিল জন ও দ্য ইস্ট সাইড বয়েজের অ্যালবাম কিংস অব ক্রাংকে[৪] একই বছরে পিটবুলের ওয়ে সঙ্গীতটি ২ ফাষ্ট ২ ফিউরিয়াস চলচ্চিত্রে সাউন্ডট্রাক হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছিল।[৯] উপরন্তু , পিটবুল আরো কিছু মিক্সটেপও প্রকাশ করেছিল, কিছু ফ্রি স্টাইল র্যার্প রচনা করেছিলেন এবং কিছু জনপ্রিয় র্যাপ সঙ্গীতের রিমিক্স করেছিলেন। ক্যাম্পবেল তার একক সঙ্গীত ললিপপ এ পিটবুলকে প্রদর্শিত করেছিলেন।[৪]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

পিটবুল ছিল নিউ কার্টার মিডল এন্ড হাই স্কুল নেতৃত্ব ও ব্যবস্থাপনার (এসএলএএম) অফিসিয়াল উদ্বোধনীর সুগঠনবিশিষ্ট বক্তা, আগস্ট ১৯, ২০১৩-এ মিয়ামির লিটলহাভানায় এটি গড়ে উঠতে তিনি সাহায্য করেন, যেখানের আশপাশে কিনা পিটবুল বেড়ে ওঠেছিলো। বিদ্যালয়টি অমুনাফাভোগী ম্যাটার একাডেমী কতৃর্ক পরিচালনা করা হয়।[১০]

পিটবুলের ডিস্কতালিকাসম্পাদনা

পিটবুল ডিস্কোগ্রাফি
 
স্টুডিও অ্যালবাম১০
সংকলন অ্যালবাম
সঙ্গীত ভিডিও৩৫
ইপি
একক৮০
প্রচারনামূলক একক১২
মিক্সটেপ

আমেরিকার র‍্যাপার পিটবুল ১০টি স্টুডিও অ্যালবাম মুক্তি, ১টি সংকলন অ্যালবাম, ১টি রিমিক্স অ্যালবাম, ৪টি মিক্সটেপ এবং ৮০টি একক সঙ্গীত (এদের মধ্যে ৪৯টি তে ফির্চাড গায়ক হিসেবে), ১২টি প্রচারনামূলক একক, এবং ৩৫টি গানের ভিডিওতে আর্ভিভূত হয়েছেন।

পিটবুল তার টুইটারে ঘোষণা দেন তার দশম স্টুডিও অ্যালবাম 'ক্লাইমেট চেইঞ্জ ২০১৭ এর মার্চে মুক্তি পাবে।

কর্নসাট ভ্রমনসম্পাদনা

চলচ্চিত্রের তালিকাসম্পাদনা

চলচ্চিত্রসম্পাদনা

বছর চলচ্চিত্র ভূমিকা ব্যাখ্যা
২০১২ লা গ্যাসোলিনা: র্যাগেসন এক্সপ্লোশন তিনি নিজে ডকুমেন্টারি
২০১৩ ব্লাড মানি তিনি নিজে গ্রেগোরি ম্যাককোয়াল্টার কতৃর্ক পরিচালিত
২০১৩ এপিক বাফো শুধুমাত্র কন্ঠ

টেলিভিশনসম্পাদনা

বছর শিরোনাম ভূমিকা ব্যাখ্যা
২০০৭ পাঙ্ক'ডি তিনি নিজে
২০০৭-২০০৮ লা এসকুইনা তিনি নিজে ২ পর্ব; কার্যনির্বাহী প্রযোজক এবং লেখক
২০১০ হোয়েন আই ওয়াজ ১৭ তিনি নিজে
২০১২ সার্ক ট্যাংক তিনি নিজে বিশেষ অতিথি তারকা
২০১২ ড্যান্সিং উইথ দ্য স্টারস তিনি নিজে অতিথি
২০১৫ এম্পায়ার তিনি নিজে সিজন ২, পর্ব ৪

ভিডিও গেমসসম্পাদনা

বছর শিরোনাম ভূমিকা ব্যাখ্যা
২০০৬ স্কেয়ারফেইস: দ্য ওর্য়াল্ড ইজ ইয়োরস কন্ঠ

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Balmaseda, Liz (ফেব্রুয়ারি ৯, ২০০৩)। "A new breed;"The Miami Herald। জুলাই ২৪, ২০০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।  Also alternatively titled "Miami rapper Pitbull is poised to sink his teeth into rap's big time"
  2. ডেভিড, জেফিরিস। "পিটবুলের বায়োগ্রাফি"AllMusic (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৮ নভেম্বর ২০১০ 
  3. "ফ্রম দ্য কেনেল টু দ্য স্ট্রিট:পিটবুল মিয়ামিতে ছন্দ এনেছে"ল্যাতিনর্যাপার.কম (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১১, ২০১২ 
  4. Jeffries, David। "Pitbull – Biography" (ইংরেজি ভাষায়)। allmusic। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৬, ২০০৯ 
  5. Cantor-Navas, Judy (জানুয়ারি ২৩, ২০১৪)। "পিটবুল, জেনিফার লোপেজ,ক্লাউদিয়ার উই আর ওয়ান (ওলে ওলে) টুর্নামেন্টের অফিসিয়াল থিম সঙ্গীত হিসেবে নির্বাচিত"Billboard (ইংরেজি ভাষায়)। Prometheus Global Media। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৬, ২০১৪ 
  6. Ojito, Mirata (ডিসেম্বর ৩, ২০০৬)। "A Night Out With Pitbull Can't Pin Him Down"The New York Times (ইংরেজি ভাষায়)। 
  7. Cobo, Leila (১৫ জানুয়ারি ২০১৫)। "Pitbull Celebrates His Birthday at Miami School Event"Billboard (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৭ আগস্ট ২০১৫ 
  8. Herrera, Jr., Reynaldo (মে ১, ২০০৯)। "Pitbull Exclusive Interview"Open Your Eyes Magazine (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ জানুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২৬, ২০০৯ 
  9. Wiltz, Teresa (জুলাই ২৫, ২০০৪)। "Hustling to the Beat"The Washington Post (ইংরেজি ভাষায়)। The Washington Post Company। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৬, ২০০৯ 
  10. Sanchez, Claudio (অক্টোবর ১৫, ২০১৩)। "Is Pitbull 'Mr. Education'?" (ইংরেজি ভাষায়)। National Public Radio। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৪ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা