পারো জেলা ভুটানের ২০টি জেলার একটি জেলা। ২০,০০০ জনসংখ্যা নিয়ে এটি ভুটানের ৪র্থ জনবহুল জেলা। তশোংদু শহর জেলার সদরদপ্তর বা রাজধানী। এটি ভুটানের অন্যতম ঐতিহাসিক উপত্যকা। পারোকে যে কোন ভুটানের জেলার সাথে তিব্বতের নিকটতম সাংস্কৃতিক সংযোগ দেয়, বাণিজ্য উপকরণ এবং আক্রমণকারী তিব্বতি উভয় উপত্যকার মাথায় এসে পৌঁছেছিল। পারোর আধিপত্যবাদী ভাষা হল জংখা, যা ভুটানের রাষ্ট্র ভাষা।

ভুটানের একমাত্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (পারো বিমানবন্দর) পারো শহরে অবস্থিত।

ভূগোলসম্পাদনা

পারো জেলার আয়তন ১২৯৩ বর্গকিলোমিটার। এর উত্তরে তিব্বত, পূর্বে থিম্পু জেলা, দক্ষিণে চুখা জেলা এবং পশ্চিমে হায়া জেলা।

পারো জেলার উত্তর অংশে (দোতেং ও তসেন্তো গিয়োগে) জিগমে দর্জি ন্যাশনাল পার্কের অংশ রয়েছে।

প্রশাসনিক বিন্যাসসম্পাদনা

পারো জেলা ১০টি গিয়োগে বিভক্ত;

  • দোগা গিয়োগ
  • দোপশারি গিয়োগ
  • দোতেং গিয়োগ
  • হাংরেল গিয়োগ
  • লামগোং গিয়োগ
  • লুংনাই গিয়োগ
  • নাজা গিয়োগ
  • শাপা গিয়োগ
  • তসেন্তো গিয়োগ
  • ওয়াংচাং গিয়োগ

জনসংখ্যাসম্পাদনা

২০০৫ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী পারো জেলার জনসংখ্যা ছিল ৩৬৪৩৩ জন এবং ২০১৭ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৪৬৩১৬ জন।[১] জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ২৭.১% এবং জেলায় জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৩৫ জন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Population and Housing Census of 2017 (National Report)" (PDF)। National Statistics Bureau। ২০১৮-০৬-২৬। পৃষ্ঠা 102। ২০১৯-০২-২৮ তারিখে মূল (pdf) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৫-৩১ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা