পাংখুয়া ভাষা

ভাষা

পাংখুয়া (পাংখু বা পাংখোয়া অথবা পাং) একটি কুকি ভাষা যা প্রধানত বাংলাদেশের কুকি উপজাতী জনগোষ্ঠী ব্যবহার করে। পাংখুয়া ভাষাভাষী জনগোষ্ঠী দ্বিভাষী। তারা বাংলায় লেখাপড়া করে। এছাড়া ভারতেও কিছু পাংখুয়া ভাষী জনগণ বাস করে।

পাংখুয়া
পাংখু
দেশোদ্ভববাংলাদেশ, ভারত
অঞ্চলবিলাইছড়ি, জোড়াছড়ি, বরকল, বাঘাইছড়ি
মাতৃভাষী
(১৯১২ অনুযায়ী বাংলাদেশে ৩২০০)[১]
ভারতে অজানা[১]
সিনো-তিব্বতীয়
  • তিব্বতি-বর্মী ভাষা
    • কুকি ভাষা
      • কেন্দ্রীয়
        • পাংখুয়া
ভাষা কোডসমূহ
আইএসও ৬৩৯-৩pkh
গ্লোটোলগpank1249[২]

উপভাষাসম্পাদনা

পাংখুয়া ভাষায় কথা বলা দুই প্রধান গোষ্ঠী হচ্ছে বিলাইছড়ি এবং কংলাক। এদের শব্দভান্ডারের মধ্যে ৮৮ ভাগ মিল খুঁজে পাওয়া যায়। এজন্য বিলাইছড়ি এবং কংলাককে পাংখুয়া ভাষার উপভাষা বলা হয়।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. এথ্‌নোলগে পাংখুয়া (১৮তম সংস্করণ, ২০১৫)
  2. হ্যামারস্ট্রোম, হারাল্ড; ফোরকেল, রবার্ট; হাস্পেলম্যাথ, মার্টিন, সম্পাদকগণ (২০১৭)। "Pankhu"গ্লোটোলগ ৩.০ (ইংরেজি ভাষায়)। জেনা, জার্মানি: মানব ইতিহাস বিজ্ঞানের জন্য ম্যাক্স প্লাংক ইনস্টিটিউট। 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা