নেইভার (ইংরেজি: Naver; কোরীয়: 네이버) একটি দক্ষিণ কোরীয় ইন্টারনেট ভিত্তিমঞ্চ। কোরিয়ার নেইভার কর্পোরেশন এটির পরিচালক। ১৯৯৯ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার স্ব-উদ্ভাবিত অনুসন্ধান ইঞ্জিন ব্যবহারকারী প্রথম আন্তর্জাল প্রবেশদ্বার (ওয়েব পোর্টাল) হিসেবে এটি যাত্রা শুরু করে। এটি ছিল বিশ্বের প্রথম পূর্ণাঙ্গ অনুসন্ধান সুবিধা প্রদানকারী ওয়েবসাইট, যেখানে বিভিন্ন শ্রেণীর অনুসন্ধান ফলাফল সংকলিত একটিমাত্র ফলাফল পাতায় সেগুলিকে প্রকাশ করা হত। এরপর নেইভার আরও বেশ কিছু নতুন সেবা যোগ করেছে, যাদের মধ্যে বৈদ্যুতিন ডাক (ই-মেইল) ও সংবাদের মতো প্রাথমিক সুবিধাগুলি থেকে শুরু করে বিশ্বের প্রথম ইন্টারনেটভিত্তিক প্রশ্নোত্তর ভিত্তিমঞ্চ "নলেজ ইন" অন্তর্ভুক্ত।

নেইভার
Naver Logotype.svg
সাইটের প্রকার
অনুসন্ধান ইঞ্জিন
মালিকনেইভার কর্পোরেশন
ওয়েবসাইটwww.naver.com
বাণিজ্যিকহ্যাঁ
নিবন্ধনঐচ্ছিক
চালুর তারিখ১৯৯৯; ২৩ বছর আগে (1999)[১]

২০২১ সালের হিসাব অনুযায়ী দক্ষিণ কোরিয়ার ৫৮% ওয়েব অনুসন্ধান নেইভারের মাধ্যমে সম্পাদিত হয়। এর বিপরীতে গুগল ব্যবহার করেন ৩৬% দক্ষিণ কোরীয় ব্যবহারকারী। তবে ২০১৭ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার অনুসন্ধানের নেইভার ৮৭%-ই নেইভারে সম্পাদিত হত।[২] তাই নেইভারকে কেউ কেউ "দক্ষিণ কোরিয়ার গুগল" নামে ডেকে থাকেন।[৩] সারা বিশ্বে নেইভারের প্রায় ২০ কোটি নিবন্ধিত ব্যবহারকারী আছেন।[৪] অনুসন্ধান ইঞ্জিনের বিশ্ববাজারের ০.১৩% অংশ দখলকারী নেইভার বিশ্বের ৮ম বৃহত্তম আন্তর্জাল অনুসন্ধান ইঞ্জিন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Naver.com WHOIS, DNS, & Domain Info - DomainTools"WHOIS। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০৮-১৭ 
  2. "Naver to enhance internet search engine to fend off Google's ascent in Korea"। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০২১ 
  3. Bogle, Ariel (২০১৭-১২-০৪)। "Has the Google of South Korea Found a Way to Save Struggling News Outlets?"The Atlantic (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৬-১৭ 
  4. "NAVER- Company"। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০২১