নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট

নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের অধীনস্থ একটি সরকারি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটি নির্বাচনি কর্মকান্ডের সাথে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। সাধারণত ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ, জেলা পরিষদ, সিটি কর্পোরেশন এবং জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে।[১]

নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট
গঠিত১৯৯৫; ২৯ বছর আগে (1995)
ধরনসরকারি
সদরদপ্তরই-১৪/জেড, আগারগাঁও, ঢাকা–১২০৭
যে অঞ্চলে
বাংলাদেশ
পরিষেবানির্বাচন সংক্রান্ত
দাপ্তরিক ভাষা
বাংলা, ইংরেজি
মহাপরিচালক
মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন চৌধুরী
প্রধান প্রতিষ্ঠান
বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট

ইতিহাস সম্পাদনা

নির্বাচনি ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠার আগে কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হত জেলা পর্যায়ে। এক্ষেত্রে ভালোমানের প্রশিক্ষক কিংবা নির্বাচন কর্মকর্তা তৈরির কোনো কার্যক্রম ছিলো না। ১৯৯৫ সালে নির্বাচনি প্রশিক্ষণে নতুন একটি ধারা তৈরি হলে প্রয়োজন পড়ে চৌকষ কর্মকর্তার। যার ফলে প্রতিষ্ঠিত হয় নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট। এশিয়া ফাউন্ডেশন, নোরাড ও বাংলাদেশ সরকারের সহায়তায় এটি প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ১৯৯৮ সালের ১ এপ্রিল প্রতিষ্ঠানটি সরকারের রাজস্ব খাতে স্থানান্তরিত হয়।[২][৩][১]

গঠন সম্পাদনা

প্রশিক্ষণ ব্যবস্থাপনার কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ১৭ সদস্যের একটি পরিচালনা পর্ষদ গঠন করা হয়। তাঁরা হলেন:[৪]

  • মহাপরিচালক: ১ জন
  • পরিচালক: ২ জন
  • উপ পরিচালক: ৪ জন
  • সহকারী পরিচালক: ৬ জন
  • প্রোগ্রামার: ১ জন
  • সহকারী প্রোগ্রামার: ১ জন
  • সহকারী মেইন্টেন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার: ১ জন
  • মেডিকেল অফিসার: ১ জন

আরো দেখুন সম্পাদনা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "পরিক্রমা, নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট"ecs.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-০২ 
  2. "ইতিহাস, নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট"eti.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-০২ 
  3. "মিশন ও ভিশন, নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট"eti.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-০২ 
  4. "পরিচালনা পর্ষদ, নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট"eti.gov.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০১-০২