দ্য এশিয়ান ব্যাংকার জার্নাল

দ্য এশিয়ান ব্যাংকার জার্নাল হল সিঙ্গাপুরের অন্যতম বাণিজ্যিক প্রকাশনা যা বৈশ্বিক অর্থনীতির নানান বিষয় নিয়ে বিচার-বিশ্লেষণ করে থাকে। এমানুয়েল ড্যানিয়েল এবং তার সহযোগীদের দ্বারা সম্পাদিত এ ম্যাগাজিনটির প্রকাশনা সংস্থা দ্য এশিয়ান ব্যাংকার গ্রুপ, যা গবেষণা, সম্মেলন এবং প্রশিক্ষণমূলক ব্যবসার নানান কর্মকাণ্ডকে কেন্দ্র করে বৈশ্বিক অর্থনীতির বিচার-বিশ্লেষণ করে থাকে। ম্যাগাজিন থেকে প্রকাশিত নিবন্ধসমূহ কোম্পানির ওয়েবসাইটেও প্রকাশিত হয়ে থাকে।[১] কোম্পানির চীনা ওয়েবসাইটে ও চীনা সংস্করণের ম্যাগাজিনে (যা চীনে প্রকাশিত হয়) মূলত এগুলো প্রকাশিত হয়।[২]

দ্য এশিয়ান ব্যাংকার জার্নাল
প্রধান সম্পাদকএমানুয়েল ড্যানিয়েল
বিভাগবাণিজ্যিক প্রকাশনা, অর্থনৈতিক সেবামূলক
প্রকাশনা সময়-দূরত্বপ্রতি বছরে দশটি প্রকাশনা
প্রকাশকদ্য এশিয়ান ব্যাংকার
প্রতিষ্ঠার বছর১৯৯৬
প্রথম প্রকাশজানুয়ারি, ১৯৯৭
দেশসিঙ্গাপুর
ভাষাইংরেজি, চীনা
ওয়েবসাইটwww.asianbankerpublication.com

২০০৯ সালে দ্য এশিয়ান ব্যাংকার-এর অনলাইন সংস্করণ চালু করে। এর মাধ্যমে এই প্রতিষ্ঠান সম্পূর্ণরূপে সকল প্রকার তথ্যাবলী মুদ্রিত রূপে উপস্থাপনের চেয়ে দ্রুত উপস্থাপনের প্রতিই বেশি জোর দেয়।[৩]

প্রকাশনাসম্পাদনা

কোম্পানির মূল বিষয়ই ছিল দ্য এশিয়ান ব্যাংকার জার্নাল, যা ৪০ পৃষ্ঠার পাক্ষিক ম্যাগাজিন হিসেবে জানুয়ারি, ১৯৯৭ সাল থেকে প্রকাশিত হয়ে আসছে। ১৯৯৭ ও ১৯৯৮-এর পুরোটা জুড়ে এটি এশিয়ার অর্থনৈতিক সমস্যা প্রকাশ করে, যেগুলো ড্যানিয়াল স্বয়ং লিখতেন। এর জন্য এবং ব্যাংকিং খাতে ইন্টারনেটের গুরুত্ব বিষয়ক লেখনীর জন্য তিনি ১৯৯৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে সম্মানজনক "সিটিব্যাংক এক্সিলেন্স ইন জার্নালিজম" পুরস্কার লাভ করেন।[৪]

ড্যানিয়েল ম্যাগাজিনটির প্রকাশ শুরু করবার আগে একজন পরামর্শক হিসেবে কাজ করতেন। তিনি জার্নালটিকে ব্যাংকিং এবং অর্থনৈতিক সেবামূলক পথে প্রবেশের একটি সুযোগ হিসেবে জার্নালটিকে দেখেন। ড্যানিয়েলের মতে এ পত্রিকাটি আঞ্চলিক ব্যাংকিং শিল্পের উপর কাজ করে, তাই জ্যেষ্ঠ ব্যাংক কর্মকর্তাদের অভিজ্ঞতা বর্ণনার একটি স্থান এশিয়ান ব্যাংকার জার্নাল। এছাড়াও এশিয়ার নানা গবেষণামূলক কাজ সম্প্রসারণের পাশাপাশি বিভিন্ন সংস্থা পরিচালনা করার একটি শক্ত ভিত্তি গড়ে তোলার জন্যেও এ প্রকাশনা কাজ করবে।[৫]

ম্যাগাজিন শিল্পের নানা দিক, যেমন সম্পাদকীয়, বর্তমান ঘটনাসমূহের বিশ্লেষণ, খুচরা ব্যাংকিং, লেনদেন, ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা, ব্যাংক রেগুলেশন এবং অর্থনৈতিক খাতে তথ্য-প্রযুক্তি প্রভৃতি বিষয়ে লেখালেখি করত। এটি শিল্পপতিদের প্রোফাইলও প্রকাশ করত, যা শিল্পপতিদের প্রভাবসহ নানা দিক বিশ্লেষণ করত। সেইসাথে বিভিন্ন ব্যাংকের সিইও এবং প্রধান নিয়ন্ত্রকদের সাক্ষাৎকারও এতে প্রকাশিত হত। কোম্পানির ওয়েবসাইটে এই সাক্ষাৎকারসমূহকে এখনো পাওয়া যায়।[৬]

২০০৫ সাল থেকে দ্য এশিয়ান ব্যাংকার জার্নাল বছরে দশবার করে প্রকাশিত হয়। যদিও ড্যানিয়েল বর্তমান সম্পাদনার কার্যক্রম তার অধীনস্থদের হাতেই ছেড়ে দিয়েছেন, তবুও তিনি প্রায়শই এ জার্নালের জন্য ব্লগ লিখে থাকেন।[৭]

কাজসম্পাদনা

এশিয়ান ব্যাংকারের মোট তিনটি ব্যবসায়িক শাখা আছে। এর মধ্যে একটি এই প্রকাশনাকে অনলাইন মাধ্যমে এবং অপর এক শাখা মুদ্রিত ধরনে প্রকাশের কাজ করে। তৃতীয় শাখাটি বিভিন্ন সময়ে নানা আঞ্চলিক ব্যাংকিং সামিট, গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে ও নানামুখী গবেষণা পরিচালনা করে থাকে।[৫]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "The Asian Banker"The Asian Banker। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১২ 
  2. "Entrepreneurship in the information business"National University of Singapore। ১৮ অক্টোবর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মার্চ ২০১২ 
  3. "The Asian Banker Publication" 
  4. "Mr Emmanuel Daniel Biography" (PDF) 
  5. "THE ASIAN BANKER: FROM TRADE JOURNAL TO INDUSTRY BENCHMARK SETTER" 
  6. "The Asian Banker Main Page"Asian banker publication। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১২ 
  7. "emmanueldaniel.com"Emmanuel Daniel Website। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১২ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা